অভ্র কিবোর্ড লেখার নিয়ম

হ্যালো ভিউয়ার্স, আশা করি সকলে অনেক ভালো আছেন। আপনাদের কে আমাদের এই সাইটে আমার পক্ষ থেকে জানাই স্বাগতম। আজকের পোস্ট এ আমি আপনাদের সাথে অভ্র কিবোর্ড লেখার নিয়ম এই বিষয় টি নিয়ে কথা বলবো। তো চলুন দেরি না করে পোস্ট টি শুরু করে দেওয়া যাক।

 

ইংরেজি আন্তর্জাতিক ভাষা হওয়ায় সব মোবাইল ফোন এই ডিফল্ট ভাষা হিসেবে সেট করা থাকে ইংরেজি। এর জন্য আমরা মোবাইল এ ইংরেজি দেখতে দেখতে কিংবা ইংরেজিতে লিখতে লিখতে এখন আর মোবাইল বা কম্পিউটার এ বাংলায় টাইপ করতে পারি না।

ফলে এখন অধিকাংশ লোকেরাই সোশ্যাল মিডিয়ায় চ্যাটিং করার সময় ইংরেজি লেখেন কিন্তু তার উচ্চারণ হয় বাংলার মতো। যেটাকে এক কথায় বাংলিশ বলা যেতে পারে। এই ধরণের লেখার একটি উদাহরণ দেওয়া হলোঃ

উদাহরণঃ Tumi kemon aso (তুমি কেমন আছো)

এখানে কথাটির উচ্চারণ বাংলার মতো কিন্তু লেখা হয়েছে ইংরেজি এলফাবেট দিয়ে। তো এটাকে বাংলিশ বলাই যেতে পারে। বর্তমানে সবাই প্রায় এই ধরণের বাংলিশ শব্দ দিয়েই চ্যাটিং করে থাকে।

তবে অভ্র নামক এক ধরণের কী বোর্ড আছে যেটার সাহায্য আপনি যদি মোবাইল বা কম্পিউটার বাংলা টাইপিং করতে নাও পারেন তাহলে ইংরেজি তে লিখবেন এবং সেটা বাংলাতে কনভার্ট হয়ে যাবে। নিচে আমরা এটা নিয়ে বিস্তারিতভাবে আলোচনা করবো।

 

অভ্র কী?

অভ্র হলো এক ধরণের কী বোর্ড সফটওয়ার এর নাম। এর সাহায্য ইংরেজিতে টাইপ করলে তা বাংলায় কনভার্ট হয়ে যাবে। মূলত এখন আমি নিজেও এই অভ্র কী বোর্ড ব্যবহার করে এই আর্টিকেল টি লিখছি। কেননা বাংলার ৩৯ টি অক্ষর সাথে যুক্ত অক্ষর বাংলাতে লিখতে অনেক সময়ের প্রয়োজন হয় সাথে কিছুটা ঝামেলাও হয়।

See also  আমার গুগল একাউন্টের পাসওয়ার্ড কত ?

তবে এই অভ্র কী বোর্ড এর সাহায্য অতি অল্প সময়ে অনেক বাংলা টাইপ করা যায়। কাজে বলাই যায়, অভ্র কী বোর্ড মোবাইল বা কম্পিউটার এ বাংলা লেখার স্পীড বাড়াতে আমাদের অনেকটাই সাহায্য করে থাকে।

অভ্র কিবোর্ড লেখার নিয়ম
অভ্র কিবোর্ড লেখার নিয়ম

অভ্র কী বোর্ড কীভাবে ডাউনলোড করবো

মূলত কিছু স্মার্টফোনের ডিফল্ট কী বোর্ড এ আগে থেকেই অভ্র নামক সিস্টেম টি যুক্ত থাকে। তবে কিছু কিছু ফোন এ তা থাকে না। তো এর জন্য আমরা প্লে স্টোর থেকে আলাদা কিছু এপলিকেশন ব্যবহার করতে পার যেটায় অভ্র কী বোর্ড এর সুবিধা থাকবে। তো আমি নিচে কয়েকটি কী বোর্ড এর তালিকা দিচ্ছি যেটায় আপনারা অভ্র কী বোর্ড পাবেন।

1. Ridmik Keyboard (আমার মতে সবথেকে ভালো এটি)

2. Gboard – the google keyboard

3. Bangla keyboard

মূলত এই তিন টি কী বোর্ড ই আমার কাছে মনে হয় বেস্ট, সকল ফোনের জন্য। তবে সব গুলোর মধ্য আমি রিদ্মিক কী বোর্ড কে এগিয়ে রাখবো। কেননা এটায় অভ্র এর সাহায্য বাংলা লেখা অনেক স্মুথ। এবং গুগল বোর্ড টাও ভালোই। এগুলো আপনারা প্লে স্টোর এ সার্চ দিলে পেয়ে যাবেন। তবে ৩ নাম্বার টা এর নামে প্লে স্টোর এ অনেক এপ আছে তাই সেটায় লিংক দিয়ে দিয়েছি।

আপনারা চাইলে এগুলো ছাড়াও প্লে স্টোর থেকে অন্যান্য অভ্র কিবোর্ড সাপোর্টেড কিবোর্ড ব্যবহার করতে পারেন। আর আপনার যদি মনে হয়ে থাকে যে আপনার ব্যবহার করা অভ্র কিবোর্ড আমার উপরে দেওয়া ৩ টি কি বোর্ড থেকে বেটার তবে অবশ্যই তা কমেন্টে জানাবেন। এবং কোন কি বোর্ড সম্পর্কে বলছেন তাও জানাবেন।

 

আরো পড়ুনঃ অ্যাসাইনমেন্ট লেখার নিয়ম

 

কী বোর্ডে অভ্র কী বোর্ড আনবো কীভাবে?

কী বোর্ড এ অভ্র কী বোর্ড আনা খুবই সহজ। এর জন্য আপনারা কী বোর্ড এর একদম নিচের দিকে দেখবেন একটি স্পেস বার অপশন আছে। সেটায় ক্লিক করে ডান বা বান দিক স্লাইড করবেন। এভাবে ১ বার বা ২ বার করলেই অভ্র কী বোর্ড চালু হয়ে যাবে। তবে এভাবে না বুঝলে ইউটিউব এ ভিডিও টিউটোরিয়াল দেখতে পারেন।

See also  সকল সিমে নিজের নাম্বার দেখার উপায় 2024

 

অভ্র কিবোর্ড লেখার নিয়ম

অভ্র কিবোর্ড লেখার নিয়ম ও অনেকটাই সোজা। আপনারা যদি অভ্র কিবোর্ড লেখার নিয়ম জানতে চান তাহলে সম্পুর্ন পোস্ট ভালো করতে পড়তে হবে এবং একটু প্র‍্যাক্টিস করতে হবে। তবেই আপনারা অভ্র কিবোর্ড লেখার নিয়ম ভালো মতো পারবেন।

অভ্র কিবোর্ড এ কোন অক্ষর টাইপ করলে বাংলায় কী হয় তা আমি নিচে দিয়ে দিচ্ছি।

ক = k
খ = kh
গ = g
ঘ = gh
ঙ = Ng
চ = c
ছ = ch
জ = j
ঝ = jh
ঞ = NG
ট = T
ঠ = Th
ড = D
ঢ = Dh
ণ = N
ত = t
থ = th
দ = d
ধ =dh
ন = n
প = p
ফ = ph
ব = b
ভ = v
ম = m
য = z
র = r
ল = l
শ = S
ষ = Sh
স = s
হ = h
ড় = R
ঢ় = RH
য় = y
ৎ = TH
ং = ng
ঃ = n বাটনে ক্লিক করে ধরে রাখতে হবে।
ঁ = qq

তো এগুলো ছিলো অক্ষর গুলো। এবার আমরা কিছু যুক্ত অক্ষর দেখে নিবো।

ক্ষ = kkh
ষ্ণ = ShN
র্ত্ত = rrtt
ঙ্ক = Ngk
হ্ম = hm
স্থ্য = sthz
ঙ্গ = Ngg
ণ্ড = ND
জ্ঞ = jNG
ক্ষ্ম = kShm
ঞ্চ = NGc
ঙ্ক্ষ = NgkSh
ঞ্ছ = NGch
ল্গু = lgu
ঞ্জ = NGj
ন্ত্ব = ntw
ত্ত = tt
ন্দ্ব = ndw
র্ক্ষ্র = rrkkhr

তো এই নিয়ম গুলো যদি মোবাইল এ একটু ফলো করেন তাহলে বুঝতে পারবেন। আর বেশি বেশি প্র‍্যাক্টিস করলেই হাতের লেখাও দ্রুত হয়ে যাবে।

 

তো ভিউয়ার্স আশা করছি এই পোস্ট টি আপনাদের কাছে অনেক টা ভালো লেগেছে। ভালো লেগে থাকলে কিন্তু অবশ্যই কমেন্ট করে জানাবেন আমাদের। আর এরকম সব পোস্ট পেতে প্রতিদিন ভিজিট করতে থাকুন আমাদের এই ওয়েব সাইট টি। আবার দেখা হবে পরবর্তী কোনো পোস্ট এ। সে পর্যন্ত সকলে ভালো থাকুন সুস্থ থাকুন। আল্লাহ হাফেয।

Leave a Comment