এস এস সি ইতিহাস সাজেশন ২০২৩

এস এস সি ইতিহাস সাজেশন ২০২৩

হ্যালো প্রিয় বন্ধুরা, আশা করি আপনারা সকলেই অনেক ভালো আছেন। আপনাদের কে আমাদের এই সাইটে আমার পক্ষ থেকে জানাই স্বাগতম। আজকের পোস্ট এ আমি আপনাদের সাথে এস এস সি ইতিহাস সাজেশন ২০২৩ এই বিষয় টি নিয়ে কথা বলবো। তো চলুন দেরি না করে পোস্ট টি শুরু করে দেওয়া যাক।

 

আমাদের জানা মতে সর্বশেষ আপডেট অনুযায়ী এসএসসি পরিক্ষা ২০২৩ আগামী বছর (২০২৩) সালের এপ্রিল মাসে এসএসসি পরিক্ষা শুরু হবে। তো তার জন্য দেখতে গেলে খুব বেশি একটা সময় নেই পরিক্ষার্থীদের কাছে। মাত্র ৪ মাস পড়ে আছে।

তো এই ৪ মাস ভালো করলে পড়লে আপনারা আশা করি পরিক্ষায় ভালো ফলাফল করতে পারবেন। তো আপনারা নিশ্চয়ই জানেন যে আপনাদের জন্য একটি শর্ট সিলেবাস দেওয়া হয়েছে প্রতিটা সাবজেক্ট এর জন্য।

তো আজকের এই পোস্ট এ আপনাদের সাথে এস এস সি ২০২৩ এর ইতিহাস সাজেশন নিয়ে আলোচনা করবো।

 

এস এস সি ইতিহাস সাজেশন ২০২৩

 

আপনাদের জন্য আজকের আমাদের এই আর্টিকেল এ এস এস সি ইতিহাস সাজেশন নিয়ে আলোচনা করা হবে।

 

এসএসসি ইতিহাস পরিক্ষা মানবন্টন ২০২৩

 

এস এস সি ইতিহাস পরিক্ষায় আপনাদের জন্য মান বন্টন কিভাবে করা হবে হয়তো অনেকে জানেন না। তো নিচে দেখে দিন কিভাবে এস এস সি ইতিহাস পরিক্ষায় মান বন্টন করা হবে।

➤ নৈবিত্তিক – ৩০ নাম্বার
➤ সৃজনশীল প্রশ্ন ও উত্তর – ৭০ নাম্বার

অর্থাৎ এস এস সি ২০২৩ সালেও ইতিহাস পরিক্ষায় কোনো প্রকার মানবন্টন পরিবর্তন করা হয় নি। তবে সকল অধ্যায় থেকে কিছু কিছু পাঠ কমিয়ে দেওয়া হয়েছে যা আপনারা শর্ট সিলেবাস এ পেয়ে যাবেন।

এভাবে এস এস সি ইতিহাস পরিক্ষা ১০০ মার্কস এর হবে। সম্পূর্ণ আগের মতোই এস এস সি পরিক্ষা হবে ২০২৩ সালে। আর পরিক্ষার জন্য দেওয়া হবে ৩ ঘন্টা। যার মধ্য উক্ত বিষয় গুলো লিখতে হবে।

 

এস এস সি ইতিহাস সাজেশন

এস এস সি ইতিহাস সাজেশন ২০২৩ আপনাদের জন্য নিম্নে দিয়ে দেওয়া হলো। সেগুলো আপনারা যদি সঠিক ভাবে শেষ করতে পারেন। তাহলে আপনারা এস এস ইতিহাস পরিক্ষায় কমন পাবেন ইনশাআল্লাহ।

 

আরো পড়ুনঃ এস এস সি বাংলাদেশ ও বিশ্বপরিচয় সাজেশন ২০২৩

 

See also  লখার একুশে গল্পের সৃজনশীল প্রশ্ন উত্তর
এস এস সি ইতিহাস সাজেশন ২০২৩
এস এস সি ইতিহাস সাজেশন ২০২৩

 

এস এস সি ইতিহাস সাজেশন ২০২৩

এস এস সি ইতিহাস সাজেশন আপনাদের জন্য নিম্নে দেওয়া হলো। আশা করি সেগুলো আপনারা ভালো করে পড়লে পরিক্ষায় ভালো ফলাফল করতে পারবেন। নিম্নে সেগুলো দেওয়া হলো।

 

এস এস সি ইতিহাস সাজেশন নৈবিত্তিক

এস এস সি ইতিহাস পাঠ্য বই এ মোট ৫ টি অধ্যায় রয়েছে। সেখান থেকে কী কী বা কোন কোন নৈবিত্তিক আসবে তা বলা সম্ভব নয়। কেননা পুরো বই এর এক টি চ্যাপ্টার শেষ করলেই দেখা যাবে সেখান থেকে প্রায় ৩০০ থেকে ৪০০ বা তার ও বেশি নৈবত্তিক প্রশ্ন ও তার উত্তর পাওয়া যাবে।

তো এত গুলোর মধ্য থেকে মাত্র কয়েকটি বলা সম্ভব নয়। আর বলা গেলেও সেগুলোই যে পরিক্ষা তে আসবে এমন নয়। তাই কষ্ট করে হলেও আমি সবাইকে বলবো সিলেবাস অনুযায়ী ইতিহাস বই এর সকল অধ্যায় ভালো করে পড়ে নিবেন, এতে নৈবিত্তিক এ যথেষ্ট কমন পাবেন।

আর এছাড়াও আপনারা চাইলে আপনাদের কাছে থেকে গাইড এ দেওয়া নৈবিত্তিক গুলো ও পড়তে পারেন। এর সাথে বোর্ড বই এ থাকা নৈবিত্তিক গুলো পড়লেও আপনারা অনেকটা কমন পাবেন আশা করি।

 

এস এস সি ইতিহাস সাজেশন সৃজনশীল

এস এস সি ইতিহাস পাঠ্য বই এ মোট ৫ টি অধ্যায় রয়েছে। সেখান থেকে কী কী বা কোন কোন সৃজনশীল আসবে তা বলা সম্ভব নয়। কেননা পুরো বই এর এক টি চ্যাপ্টার শেষ করলেই দেখা যাবে সেখান থেকে প্রায় ৩০ টি থেকে ৪৫ টি বা তার ও বেশি সৃজনশীল প্রশ্ন ও তার উত্তর পাওয়া যাবে।

তবে বোর্ড বই এ যে সকল সৃজনশীল আছে সেগুলো চাইলেও আপনারা পড়তে পারেন। এতে কম পক্ষে ১-৩ টি হলেও কমন পাবেন পরিক্ষায়। আর প্রতিটা চ্যাপ্টার ভালো করে শেষ করলে আপনারা যে কোনো সৃজনশীল প্রশ্ন এর উত্তর লিখতে পারবেন।

তবে আজকের এই পোস্ট এ আমি আপনাদের সাথে ৫ টি অধ্যায়ের সমন্বয়ে কয়েকটি সৃজনশীল প্রশ্ন দিয়ে দিচ্ছি। সেগুলো যদি ভালো করে পড়েন তবে সেখান থেকে কমন পাবেন, না আমি এমন বলছি না। তবে সেখান থেকে একটু হলেও ধারণা পাবেন যে কিভাবে এস এস সি ইতিহাস পরিক্ষা কীভাবে হবে তা বুঝতে পারবেন।

 

এস এস সি ইতিহাস সাজেশন সৃজনশীল প্রশ্ন

নিম্নে কয়েকটি ইতিহাস বিষয়ের সৃজনশীল দেওয়া হলো। সেগুলো থেকে আশা করি কিছুটা হলেও সাহায্য পাবেন।

১। রুমি, নাফিসা ওরা ওদের চাচার সাথে জাতীয় জাদুঘর ও মুক্তিযুদ্ধ জাদুঘরে বেড়াতে যায় এবং অনেক পুরাতন নিদর্শন দেখে। সেখানে রুমি মসলিন শাড়ি নবাবদের ব্যবহৃত তৈজসপত্র, আসবাবপত্র এবং গহনাপত্র দেখে মুগ্ধ হয়। অন্যদিকে নাফিসা মুক্তিযুদ্ধের বিরুদ্ধ পক্ষের আত্মসমর্পণ দলিল ও বিভিন্ন ঐতিহাসিক ঘটনা সংবলিত পোস্টার, পুস্তক-পত্রিকা দেখে আবেগাপ্ত হয়।

See also  স্কুল জীবনের স্মৃতি বাংলা রচনা

ক. আধুনিক ইতিহাসের জনক কে?
খ. ইতিহাস পাঠে কীভাবে আমাদের সচেতনতা বৃদ্ধি পায়?
গ. রুমি ইতিহাসের কোন ধরনের উপাদান দেখেছিল? পাঠ্যবইয়েরআলোকে বিশ্লেষণ করো।
ঘ. প্রাচীন বিশ্বসভ্যতা জানার জন্য নাফিসার দেখা ইতিহাসের উপাদানগুলো গুরুত্বপূর্ণ”- উক্তিটির ব্যাখ্যা দাও।

 

২। বাংলাদেশ একটি নদীমাতৃক দেশ। এখানে প্রায় প্রতি বছরই বন্যায় নদীর তীরবর্তী এলাকা প্রবাহিত হয়। বন্যার পানি নেমে গেলে তীরবর্তী এলাকায় পলি জমে মাটির উর্বরতা বৃদ্ধি পায়। ফলে ঐ অঞ্চলে চাষাবাদ করে কৃষকরা প্রচুর ফসল উৎপাদন করে এবং সমৃদ্ধি লাভ করে।

ক. হায়ারোগ্লিফিক কী?
খ. সাহিত্যের ক্ষেত্রে গ্রিকদের অবদান ব্যাখ্যা করো।
গ. উদ্দীপকে বর্ণিত অবস্থার সাথে কোন সভ্যতার অববাহিকার মিল পাওয়া যায়? ব্যাখ্যা করো।
ঘ. লিখন পদ্ধতি ও কাগজ আবিষ্কারে উক্ত সভ্যতার অবদান পর্যালোচনা করো।

 

৩। রহিম, করিম ও মাসুদ এস.এস.সি পরীক্ষা শেষে কুমিল্লার ময়নামতিতে অবস্থিত শালবন বিহার পরিদর্শনে যায়। পরিদর্শনকালে তারা জানতে পারে যে, কুমিল্লা অঞ্চল প্রাচীনকালে একটি জনপদের অংশ ছিল । তারা আরও জানতে পারে উক্ত জনপদ একসময় চব্বিশ পরগনা পর্যন্ত বিস্তৃত ছিল।

ক. চন্দ্রদ্বীপের বর্তমান নাম কী?
ঘ. প্রাচীন বাংলায় কী কী জনপদ ছিল?
গ. উদ্দীপকটি কোন প্রাচীন জনপদের ইঙ্গিত বহন করে? ব্যাখ্যা করো।
ঘ. উক্ত জনপদটি কেবল কুমিল্লা জেলার মধ্যে সীমাবদ্ধ ছিলড় তোমার মতামত দাও।

 

৪। জনাব রফিক সাহেব তিলডাঙ্গা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান। তার পিতা জব্বার সাহেব ছিলেন এই ইউনিয়নের প্রতিষ্ঠাতা। অনেক অরাজকতার অবসান ঘটিয়ে তিনি ইউনিয়নে শান্তি আনেন । সবাই মিলে জব্বার সাহেবকে চেয়ারম্যান নির্বাচিত করেন। তাই তিনি প্রথম নির্বাচিত প্রতিনিধি। রফিক সাহেবও পিতার যোগ্য উত্তরসুরি। তিনি প্রথমে একটি সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে তবে পরবর্তীকালে সব কিছু সামলে নেন। তিনি অনেক শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান তৈরি করেন এবং অন্য ধর্মের প্রতিও সহনশীল ছিলেন।

ক. মহাসামন্ত কাদের বলা হয়?
খ. প্রাচীন বাংলার শেষ রাজবংশ কীভাবে প্রতিষ্ঠিত হয়?
গ. উদ্দীপকে জনাব জব্বার সাহেবের সাথে প্রাচীন ইতিহাসের কোন রাজার মিল পাওয়া যায়? ব্যাখ্যা করো।
ঘ. উদ্দীপকে রফিক সাহেবের সাথে প্রাচীন বাংলার যে রাজার মিল রয়েছে শিক্ষাক্ষেত্রে তার অবদান অবিস্মরণীয়ড় বিশ্লেষণ করো।

 

৫। ইতিহাসের শিক্ষক হাবিবুর রহমান শ্রেণিকক্ষে শিক্ষার্থীদের সামনে গল্পের হলে বললেন, সালিয়াকান্দি নামে এক অঞ্চলের মানুষ একজন অত্যাচারিত শাসকের অন্যায়- অবিচারে মানবেতর জীবনযাপন করছিল। হঠাৎ একদিন কোথা থেকে এক ব্যক্তি সেখানে আগমন করে নিজেকে সে অঞ্চলের মোড়ল হিসেবে ঘোষণা করে। তার নাম শাহ আলম। সে সাহসের সাথে অত্যাচারী শাসককে বিতাড়িত করে এবং বেশ দক্ষতা ও দূরদর্শিতার সাথে মানুষের মধ্যে শান্তি ফিরিয়ে আনে।

See also  Class 7 math solution PDF 2022 Free ।৭ম শ্রেনীর গনিত সমাধান বই পিডিএফ

ক. বৌদ্ধ ধর্মের একজন বড় পৃষ্ঠপোষক কে ছিলেন? খ. তামশাসন বলতে কী বোঝ?
গ. আহ্ম্যক শাহ আলমের সাথে তোমার পাঠ্যপুস্তকের কোন শাসকের মিল রয়েছে? ব্যাখ্যা করো।
ঘ. উদ্দীপকে উল্লিখিত আগন্তকের পুত্রও একজন সুযোগ্য শাসক ছিলোড় উক্তিটির যথার্থতা মূল্যায়ন করো।

 

৬। সজল ও কাজল দুই ভাই। সজল লেখাপড়ায় আগ্রহী হলেও কাজলের পড়ালেখায় মন ছিল না। ওদের বাবা কাপড়ের ব্যবসায়ী ছিলেন। হঠাৎ বাবা মারা যাওয়ায় দুই ভাইকেই ব্যবসায় মন দিতে হয়। বিদেশি কাপড়ের ব্যবসায় লাভ বেশি বলে কাজলের আগ্রহ ছিল সেই দিকে, কিন্তু লাভ কম হলেও সজল দেশি কাপড়ের ব্যবসায় অধিক আগ্রহী ছিল।

ক. বঙ্গভঙ্গ কত সালে কার্যকর হয়?
খ. ইংরেজদের বিভেদ ও শাসননীতি বলতে কী বুঝায়? ব্যাখ্যা করো।
গ. সজল কোন আন্দোলনে উদ্বুদ্ধ হয়ে, দেশি কাপড়ের ব্যবসায় আগ্রহী হয়? ব্যাখ্যা করো।
ঘ. “উক্ত আন্দোলনই গণসচেতনতা ও স্বাধীনতা অর্জনে জনগণকে আন্দোলিত করেছে” – বিশ্লেষণ করো।

 

৭। জনাব শাকিল একজন সমাজ সচেতন রাজনীতিবিদ। তিনি তার গ্রামের কৃষকদের ওপর জোতদারদের অত্যাচার, অত্যাচারের প্রতিবাদ করলে নিপীড়ন, উচ্চ সুদে ঋণ দান, ঋণ আদায়ে নির্যাতন ও বিভিন্ন অজুহাতে অর্থ আদায়ের বিষয়গুলোতে গভীরভাবে ব্যথিত হন। তিনি উপলব্ধি করলেন, এ অবস্থা থেকে কৃষকদের রক্ষা করতে হলে গ্রামের কৃষক ও মধ্যবিত্ত শ্রেণিকে সংঘবদ্ধ করতে হবে। সে অনুযায়ী তিনি গ্রামের কৃষক ও মধ্যবিত্ত শ্রেণিকে সংগঠিত করে একটি সংগঠন গড়ে তোলেন।

ক. ঢাকার অনুশীলন সমিতির প্রধান সংগঠক কে ছিলেন?
খ. লাহোর প্রস্তাবের মূল বিষয় কী ছিল?
গ. জনাব শাকিল সংগঠন গড়ে তোলার ক্ষেত্রে কোন নেতার আদর্শে অনুপ্রাণিত হয়েছিলেন? ব্যাখ্যা করো।
ঘ. উক্ত নেতার কর্মকান্ড কি শুধু কৃষক আন্দোলনের মধ্যেই সীমাবদ্ধ ছিল? মতামত দাও।

 

এস এস সি ইতিহাস সাজেশন ২০২৩ সালের সকল টপিক নিয়ে আপনাদের সাথে আমরা প্রতিদিন একটি করে টপিক নিয়ে আলোচনা করা হবে। এর জন্য আপনাদের প্রতিদিন আমাদের এই ওয়েব সাইট এ ভিজিট করতে হবে।

আর এস এস সি ইতিহাস সাজেশন বলতে আপনারা যদি উপরের সাজেশন গুলো সঠিক ভাবে শেষ করে ফেলেন তবে আপনি খুব ভালো ভাবে পরিক্ষা দিতে পারবেন এবং এস এস সি ইতিহাস পরিক্ষায় অনেক কমন পাবেন।

এছাড়াও যদি আপনাদের আলাদা ভাবে কোনো সাজেশন লাগে প্রতিটা টপিক এর জন্য আলাদা আলাদা পোস্ট এ সাজেশন পাবেন। সেগুলো পাওয়ার জন্য আপনারা প্রতিদিন আমাদের এই ওয়েব সাইট এ ভিজিট করতে থাকুন।

 

শেষ কথা

তো প্রিয় বন্ধুরা আজকের এই পোস্ট এ আপনারা জানলেন, এস এস সি ইতিহাস সাজেশন ২০২৩ । আশা করছি এই পোস্ট টি আপনাদের কাছে অনেক টা ভালো লেগেছে।

ভালো লেগে থাকলে কিন্তু অবশ্যই কমেন্ট করে জানাবেন আমাদের। আর এরকম সব পোস্ট পেতে প্রতিদিন ভিজিট করতে থাকুন আমাদের এই ওয়েব সাইট টি তে। আবার দেখা হবে পরবর্তী কোনো পোস্ট এ। সে পর্যন্ত সকলে ভালো থাকুন সুস্থ থাকুন। আল্লাহ হাফেয।

Leave a Comment