অনলাইনে ইনকামএডসেন্সব্লগিং

দ্রুত গুগল এডসেন্স এপ্রুভাল পাওয়ার উপায় ২০২২। গুগল এডসেন্স A To Z

দ্রুত গুগল এডসেন্স এপ্রুভাল পাওয়ার উপায় ২০২২।

 

আসসালামু আলাইকুম প্রিয় ব্লগার বন্ধুরা।  কেমন আছেন সবাই আশা করি ভালো আছেন। আমিও ভালো আছি আলহামদুলিল্লাহ।

আর ভালো আছি বলেই তো আপনাদের সামনে হাজির হলাম সময় জনপ্রিয় টপিক গুগল এডসেন্স এপ্রুভাল নিয়ে। আজকের পোষ্টের মুল আলোচনা থাকবে গুগল এডসেন্স নিয়ে।  গুগল এডসেন্স কি? কিভাবে গুগল এডসেন্স আবেদন করবেন? কিভাবে দ্রুত গুগল এডসেন্স এপ্রুভাল পাবেন, কিভাবে রিজেক্টেড এডসেন্স একাউন্ট এপ্রুভাল নিবেন। গুগল এডসেন্স লো ভ্যালু কন্টেন্ট সমস্যা কিভাবে সমাধান করবেন? 

কিভাবে গুগল এডসেন্সের পলিসি ভায়োলেন্স ঠিক করবেন। মোট কথা গুগল এডসেন্স নিয়ে এ টু জেড আলোচনা করবো ইনশাআল্লাহ।  আজকের এই লেখা কিন্তু অনেক বড় হবে। কাজেই যাদের হাতে পর্যাপ্ত সময় এবং ধৈর্য্য আছে শুধু মাত্র তারাই কন্টিনিউ করতে পারবেন। 

এই লেখাটি কাদের জন্য? 

 

গুগল এডসেন্স নিয়ে আজকের এই লেখা সবার জন্য না!  আজকের লেখা তাদের জন্যই যারা ধের্য্যশীল এবং কঠর পরশ্রমী। যারা সহজে কোন কাজে হাল ছেড়ে দেয় না তাদের জন্যই আজকের লেখা। কারন আজকে আমি এমন কিছু মেথড শেয়ার করবো সেগুলো প্রয়োগ করে ফল পেতে একটু সময় লাগবে কিন্তু কাজ হবে শতভাগ ইনশাআল্লাহ।।

আমি আগেই বলেছি যারা সময় নিয়ে পড়তে পারবেন তারাই থাকুন।  আর এই লেখাটি তাদের জন্য না যারা গুগল এডসেন্সে এক্সপার্ট । তারা এই লেখা পড়লে সময় নষ্ট হবে।

 

শুধুমাত্র তারাই আজকের লেখা পড়ুন৷,  যারা গুগল এডসেন্স এ নতুন।  যারা কয়েকবার চেষ্টা করেও এডসেন্স এপ্রুভাল পাচ্ছেন না। বার বার গুগল এডসেন্স রিজেক্ট করে দিচ্ছে। এডসেন্স লো ভ্যালু কন্টেন্ট নিয়ে বেশ বিরক্ত।  এডসেন্স লো ভ্যালু সমস্যা সমাধান করতে পারতেছেন না। তাদের জন্যই আজকের লেখা।

 

কিভাবে দ্রুত গুগল এডসেন্স এপ্রুভাল পাবেন?  How To Get Fast Approve Google Adsense 2022

 

খুব শখ করে ব্লগিং জগতে পা রেখেছিলেন তাই না?  স্বপ্ন ছিলো ব্লগিং করবো, এডসেন্স  এপ্রুভ পাবো। এডসেন্স থেকে ইনকাম হবে।  একটু সাচ্ছন্দ্যে জীবন কাটাবো।

আহা এখন দেখছেন এডসেন্স পাওয়াটা খু্ব কষ্টকর।  অনেক চেষ্টা করতেছেন তবুও এডসেন্স এপ্রুভড হচ্ছে না। বার বার রিজেক্ট হচ্ছে। পলিসি ভায়োলেশন। লো ভ্যালু, পোগ্রাম পলিসি এরকম হাবিজাবি ইস্যুতে আপনার ব্লগিং ক্যারিয়ার অতিষ্ঠ। এখন চাচ্ছেন কোনমতে সাইটটা সেল করে দিয়ে ব্লগিং জগতের ইতি টানি?  না ভাই এখনো এরকম আত্মঘাতী সিধান্ত নিবেন না। বহুত কষ্টই তো করলেন আর একবার আমার কথা অনু্যায়ী শেষ চেষ্টা টি করে দেখুন না এডসেন্স এপ্রুভড পান কিনা।

আমি আশাবাদী  পাবেন কারন আমি পাই। আমি ১ টা সাইট শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত ১ মাসের মধ্যেই এডসেন্স পাই।   আমি যদি দ্রুত পাই আপনি কেন পাবেন না? গুগল কি আমার শশুড় লাগে যে শুধু আমাকেই এডসেন্স দিবে আপনাকে দেবে না? হ্যা ভাই আপনাকেও দেবে। সঠিকভাবে কাজ করুন।

দ্রুত গুগল এডসেন্স এপ্রুভাল পাওয়ার সহজ কিছু উপায়ঃ

 

১। টপ লেভেল ডোমেইন ব্যাবহার করুনঃ 

 

গুগল এডসেন্স সহজে এবং দ্রুত পেতে হলে একটি টপ লেভেল ডোমেইন ব্যাবহার করা জরুরী।  ডোমেইন কি সেটা তো নিশচয় জানেন। তবে টপ লেভেল ডোমেইন কোনগুলো সেটা হয়তো জানেন না। ওকে সমস্যা নাই আমি বলে দিচ্ছি টপ লেভেল ডোমেইন কোনগুলো।

টপ লেভেল ডোমেইন হলো৷

  • .COM
  • .XYZ
  • .INFO
  • .NET
  • .ORG
  • .IN

এরকম আরো কিছু টপ লেভেল ডোমেইন আছে খোজ করলে পাবেন।  তো এইগুলা টপ লেভেল ডোমেইনের যেকোন একটা ব্যাবহার করলে গুগল এডসেন্স পাওয়াটা সহজ হয়।

 

২। সাইটের ডিজাইন সুন্দর করুন।  লোডিং স্পিড বাড়ানঃ

আপনার সাইটের ডিজাইনের দিকে একটু নজর দিন। সব সময় চেষ্টা করবেন সাইটটা যেন দৃষ্টিনন্দন হয়। ভিজিটর যেন সহজেই আপনার সাইটের কোথায় কি আছে দ্রুত খুঁজে পেতে পারে। আপনার সাইটের ডিজাইন যদি ভাঙ্গাচুরা আগোছালো নোংরা হয় তাহলে কিন্তু আপনি এডসেন্স পাবেন না।

 

আপনার বোনের বিয়ের কথাবার্তা চলতেছে একটা ছেলের সাথে। তো আপনারা ছেলের ঘর দেখতে গেলেন। গিয়ে দেখলেন ঘর বাড়ি অপরিষ্কার।  কিছু চেয়ার টেবিল আছে তা ভাঙ্গাচুরা। টিউবওয়েল যেখানে থাকার কথা সেখানে না থেকে আছে ঘরের মাঝখানে। রান্না ঘর রেখেছে বাড়ির উঠানের মধ্যে।  তো বাড়ি  এরকম আগোছালো পরিবেশে কি আপনি আপনার আদরের বোন টিকে বিয়ে দেবেন? আমি দেবো না।

এরপর আসুন লেডিং স্পিডের ব্যাপারে। সাইটে ঢুকতেই যদি ৩ মিনিট শুধু লোডিং লেখা থাকে তাইলে ঐ ওয়েবসাইটে কোন ইউজার ঢুকবে? আর ইউজার ফ্রেন্ডলি না এমন ওয়েব সাইটে  গুগল কখনই এডসেন্স এপ্রুভড দেবে না।

যেমনটি আপনার বোনের সাথে প্রস্তবিত ছেলের বাড়িতে যাওয়ার রাস্তা যদি দুর্গম হয়। কাদা ধুলি মাখা রাস্তা হয়। বাড়িতে ঢুকতেই গেলেই যদি আপনি চিৎপটাং হয়ে পরে যান তাহলে কি আপনি আপনার প্রিয় বোনটিকে সেই বাড়িতে পাঠাবেন?  কখনই না।  ঠিক তেমনই গুগল চায় ক্লিন, লোডিং ফাস্ট ওয়েব সাইট। তাহলে কন্টেন্ট একটু কম থাকলেও এডসেন্স এপ্রুভড দিয়ে দেয়। যেমনি আপনি আপনার বোনের বেলায় করবেন। বোনকে বিয়ে দিবেন ছেলের বেতন একটু কম কিন্তু ছেলের পরিবার ভালো বংশ ভালো, ছেলের ব্যাবহার ভালো ছেলে দেখতে সুন্দর। ছেলের বাড়িতে যাবার রাস্তাও বেশ ভালো। তাহলে কিন্তু বেতন একটু কম হলেও বিয়েটি দিয়ে দেন।। তাই না?

৩। গুরুত্বপূর্ণ পেজ তৈরী করুন

সাইটে এডসেন্স  এপ্রুভ পেতে হলে আপনাকে প্রয়োজনীয় কিছু পেজ তৈরী করতে হবে।

যেমন

  • About Us 
  • Contact  Us
  • Privacy Police 
  • Disclaimer 
  • Terms And Conditions 

এডসেন্স এপ্রুভড পেতে হলে মোটামুটি এই পেজ গুলো থাকতে হবে। এবং শুধু পেজ গুলো বানিয়ে রাখলেই হবে না। পেজের ভিতর সুন্দরভাবে তথ্য বহুল লেখা লিখবেন।

৪। মিনিমাম ৩০ টা  হাই কোয়ালিটি কন্টেন্ট লিখুনঃ 

 

হ্যা এখন আসছি মুল পয়েন্টে মানে ছেলের ব্যাক্তিগত ব্যাপারে। এখানে যদি আপনি কম্প্রোমাইজ করেন,  যদি ছাড় দেন তাইলে কিন্তু হবে না, ছেলে যদি কানা,  ন্যাংড়া,  বাবা খোর!  হয় তাও যদি আপনি আপনার বোন কে সেই ছেলের সাথে বিয়ে দেন তাইলে সারা জীবন পস্তাতে হবে আপনার, আর আশা করি আপনি সজ্ঞানে এরকম কারো সাথে আপনার বোন কে দেবেন না।।

ঠিক তেমনি গুগলও চায় হ্যান্ডস্যাম ছেলে!  থুক্কু কোয়ালিটি কন্টেন্ট ।  আপনার ওয়েবসাইটে হাই কোয়ালিটি কন্টেন্ট লিখুন। ১ হাজার শব্দের মিনিমাম ৩০ টা, মানে সর্বমোট ২৮/৩০ হাজার শব্দের কন্টেন্ট হলেই এখন গুগল এডসেন্স এপ্রুভাল পাওয়া যায় সহজেই । এক্ষেত্রে অনেকেই প্রশ্ন করে ভাই মোট ৩০ টা কন্টেন্টই লিখতে হবে?  কম লিখলে হবে না? আমি বলি  কম লিখলেও হবে, আপনি যদি ১ টা কন্টেন্ট ৩ হাজার শব্দ করে লিখেন তাইলে মোট ১০ টা কন্টেন্ট লিখলে ৩০ হাজার শব্দ হয়ে যায়। মোট কথা আমাদের টার্গেট থাকবে ৩০ হাজার শব্দের ইউনিক হাই কোয়ালিটি কন্টেন্ট লেখার। তাহলেই ধরা দেবে স্বপ্নের সোনার হরিণ।

 

৫। কপি প্রি ইমেজ ব্যাবহার করাঃ

হ্যা ভাই আপনার সাইটে সব ঠিক ঠাক করলেন। সাইটের সুন্দর ডিজাইন করলেন। পেজ তৈরী করলেন। মনের মত করে হাই কোয়ালিটি ইউনিক কন্টেন্ট লিখলেন, কিন্তু সাইটে ইমেজ ব্যাবহার করলেন কপিরাইট।  মানে গুগল থেকে বা অন্য কারো ওয়েবসাইট থেকে ইমেজ ডাউনলোড করে আপনার সাইটে আপলোড করে দিলেন। ব্যাপারটা এমন হলো যে ছেলে ভালো বংশ ভালো সব ভালো, বিয়ে করতে যে জামা গায়ে দিয়ে গেছে সেই জামাটা চুরি করা!  তাও চুরিটা করেছে মেয়ের ভাইয়ের দোকান থেকে!  তাইলে কি মনে হয় ঐ ছেলে বাসর ঘরের স্বাদ পাবে?  নাকি তার আগেই মামুর বাড়ি পাঠাবে মেয়ে পক্ষ?  হ্যা কপি রাইট ইমেজ ব্যাবহার করলে আপনার সাইটকে গুগল এডসেন্স এপ্রুভাল তো দেবেই না বরং রিজেক্টের খাতায় ঢুকিয়ে দেবে।

তাই সবধান কপি রাইট ইমেজ ব্যাবহার থেকে দুরে থাকুন। একান্তই যতি ইমেজ না পান তবে ডাউনলোড করা ইমেজটা একটু ইডিট করুন সাইজ ছোট বড় করুন। এভাবে ব্যাবহার করা যেতে পারে।

সবচেয়ে ভালো হয় নিজেই ইমেজ তৈরী করা। এখন তো মোবাইলের মাধ্যমে পিক্সিল্যাব সফটওয়্যার দিয়ে খুব সুন্দর সুন্দর ইমেজ বানানো যায়।

 

৬। অন্য এড নেটওয়ার্ক ব্যাবহার না করাঃ

প্রথম অবস্থায় গুগল এডসেন্স এপ্রুভাল পেতে হলে আপনাকে অন্য কোন এড নেটওয়ার্ক সাইটে ব্যাবহার করা থেকে বিরত থাকতে হবে।।

অন্য এডনেটওয়ার্কের এড ব্যাবহার করলে এডসেন্স এপ্রুভাল পেতে সমস্যা হবে। আবারো সেই বিয়ের উদাহরন ই দেই। আপনার বোনকে কি জেনে বুঝে বিবাহিত ছেলের সাথে বিয়ে দিবেন? নিশ্চয়ই না।  কেউ কি সতীনের ঘর করতে চাইবে। তার উপর মেয়ে যদি একটু সুন্দরী হয়  তাইলে তো আর কথাই নাই, মাইয়ার ভাব আর দেখে কে।  তো এইরকম গুগল ও চায়  প্রথম যেন অন্য এড নেটওয়ার্ক যুক্ত না থাকে।

মোটামুটি এ কয়টা নিয়ম মেনে সাইট বানালে আশা করি গুগল এডসেন্স এপ্রুভাল পেতে সমস্যা হবে না। এখন কথা হলো অনেকের মনেই এতক্ষণে প্রশ্ন এসেছে আমি উপরের নিয়মের সবগুলোই মানি কিন্তু তবুও এডসেন্স পাচ্ছি না।  হ্যা ভাই যাদের মনে এরকম প্রশ্ন চলে এসেছে তারা আমার সাথে লেখা শেষ পর্যন্ত কন্টিনিউ করুন।উত্তর পাবেন ইনশাআল্লাহ।

এখন আমরা আলোচনা করবো গুগল এডসেন্স এপ্রুভাল এর ক্ষেত্রে কম কিছু ইস্যু নিয়েঃ

লো ভ্যালু কন্টেন্ট সমস্যাঃ

বর্তমান সময়ে ব্লগারদের জন্য এক আতংকের নাম লো ভ্যালু কন্টেন্ট সমস্যা।  যতগুলো এডসেন্স রিজেক্ট হয় তার ৯০% ই হয় লো ভ্যালু কন্টেন্ট ইস্যু দেখিয়ে।  এখন আমরা জানবো লো ভ্যালু কন্টেন্ট কেন আসে? লো ভ্যালু কন্টেন্ট সমস্যার সমাধান কি? How To Solve Low Value Content? 

গুগল এডসেন্স এপ্রুভাল

আমার বাস্তব অভিজ্ঞতার আলোকে এই লো ভ্যালু কন্টেন্ট সমস্যা যেসব কারনে আসে তা হলোঃ

  • সাইটে পর্যাপ্ত মান সম্পন্ন কন্টেন্ট না থাকা
  • পোষ্ট গুলো গুগলে ইনডেক্স না থাকা
  • পোষ্টের ভিতরে  সঠিক ইন্টারনাল লিংকিং, ও আউটবাউন্ড লিংক না থাকা। 
  • সাইটের Title, Tagline না থাকা 
  • সাইটের ফ্যাবআইকন।  এবং মানসম্পন্ন না হওয়া 
  • নিম্ন মানের অস্পষ্ট ইমেজ ব্যাবহার করা। কপি ইমেজ ব্যাবহার করা
  • সাইটের লুক আগোছালো থাকা
  • ক্রাক, নাল, ভাইরাস যুক্ত থিম প্লাগিন ব্যাবহার করা।
  • ট্রান্সিলেটেড কন্টেন্ট, রিরাইট কন্টেন্ট ব্যাবহার করা

মোটামুটি এইগুলো কারনে আমি দেখেছি লো ভ্যালু আসে। তাই লো ভ্যালু কন্টেন্ট সমস্যা সমাধান করতে হলে আপনাকে কিওয়ার্ড রিচার্জ করে এসইও ফ্রেন্ডলি কন্টেন্ট লিখতে হবে, রিলিভেন্ট ইন্টারনাল এক্সটার্নাল লিংকিং করতে হবে। ঝকঝকে ডিজাইন রাখতে হবে সাইটে।

 

Google Adsense Site Down Or Unavailable Problem Solve: 

অনেক সময় দেখা যায় সাইট ডাউন অথবা আন্ডার কন্সট্রাকসন সমস্যা দেখিয়ে এডসেন্স রিজেক্ট করে দেয় । আসলে এই টা কিসের জন্য দেয় । আমার ব্যক্তিগত অভিজ্ঞতা থেকে বলছি । এই সমস্যা হয় দুটি কারনে ।

১। আপনি এডসেন্স আবেদন করার পর যদি সাইটের ডিজাইনে কোন চেন্চ করেন তাহলে এই সাইট ডাউন ইস্যু আসেবে ।

২। আপনার হোস্টিং এর কারনে এই ইস্যু আসবে । আপনি নিম্ন মানের হোস্টিং ব্যাবহার করার কারনে মাঝে মধ্যেই আপনার সাইট ডাউন থাকে । আর এডসেন্স আবেদন করার পর যদি সাইট কখনো ডাউন হয় । তাহলে আপনার এই সমস্যা দেখা দেয় । তাই google adsense site down or unavailable সমস্যা সমাধান করতে হলে , এডসেন্স আবেদন করার পর সাইটের ডিজাইন চেন্চ করা যাবে না । এবং ভালো মানের হোস্টিং ব্যাবহার করতে হবে । তাহলেই আশা করা যায় আর এই সমস্যার কারনে রিজেক্ট হবে না ইনশাআল্লাহ ।

 

Site Behavior Navigation Adsense Problem Solve: 

এডসেন্স আবেদন করার পর যদি আপনার কখনো এই ইস্যুতে সাইট রিজেক্ট হয় । তাইলে খুশির খবর ! খুশির খবর কেন বললাম কারন এই ইস্যুটা সমাধান করা একমদ সহজ । আর এইটা আসা মানেই আপনার সাইটের মোটমুটি সব ঠিক আছে । শুধু এই ইস্যু টা ফিক্স করতে পারলেই কেল্লা ফতে ।

তো যাই হোক এই সাইট বিহ্যাবিয়ার নেভিগেশন ইস্যু টা ফিক্স করতে হলে আপনাকে মেন্যু বার টা সুন্দর করে সাজাতে হবে ।উইজেড গুলি ঠিক ঠাক রাখতে হবে । আর সবচেয়ে বড় কথা হলো হোম পেজের কোন ক্যাটাগরি ফাকা রাখা যাবে না । তাহলেই আশা করি site behavior navigation adsense ইস্যু থেকে মুক্তি পাবেন । Site Behavior : Navigation Issue

How to fix google Adsense policy violation 

এডসেন্স এপ্রুভাল করাতে গেলে এই সমস্যাটাও একটি মারাত্বক সমস্যা  । এইটা মুলত কি কি কারনে আসে তা জানতে গুগলের পোগ্রাম পলিসিটা ভালো করে পড়বেন । আমার জানামতে যেসব কারনে এডসেন্সে পলিসি ভায়োলেন্স ধরে তা হলো

  • গুরুত্বপূর্ণ পেজগুলি না থাকা
  • কপি ইমেজ + কনটেন্ট ব্যাবহার করা ।
  • সন্ত্রাসী গোষ্টিদের নাম ব্যাবহার করা ।
  • হ্যকিং + হ্যাকার এসব শব্দ ব্যাবহার করা ।
  • ভিজিট দিজ লিংক
  • স্পনসরড লিংক
  • টুডে অফার
  • ফেবারিট সাইট

এরকম আরো অনেক কিছুই আছে আপনি একটু কষ্ট করে গুগলের পোগ্রাম পলিসি টা পড়বেন ।

 

আরো পড়ুন – সকল সিমের নাম্বার দেখার উপায়ঃ

শেষকথাঃ 

গুগল এডসেন্স এপ্রুভাল নিয়ে অনেক কথায় হলো । আশা করি কিছুটা হলেও উপকৃত হয়েছেন । আর আমাদের এই পোষ্টের কোন বিষয় যদি না বুঝে থাকনে তবে আমাদের কে কমেন্ট এর মাধ্যমে জানাতে পারেন । আমরা চেষ্টা করবো আপনার সমস্যাটি বুঝিয়ে দেবার ইনশাআল্লাহ । আজকের মত এখানেই শেষ করছি । সামনে আবার দেখা হবে ভিন্ন কোন টপিক নিয়ে ইনশাআল্লাহ । ততক্ষণ পর্যন্ত ভালো থাকুন সুস্থ থাকুন ইডু টিউন বিডির সাথেই থাকুন। ধন্যবাদ

 

ট্যাগঃ গুগল এডসেন্স এপ্রুভাল, গুগল এডসেন্স এপ্রুভাল,গুগল এডসেন্স এপ্রুভাল,গুগল এডসেন্স এপ্রুভালগুগল এডসেন্স এপ্রুভালগুগল এডসেন্স এপ্রুভালগুগল এডসেন্স এপ্রুভালগুগল এডসেন্স এপ্রুভাল

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button