জন্ম তারিখ দিয়ে জন্ম নিবন্ধন যাচাই করার নিয়ম

জন্ম তারিখ দিয়ে জন্ম নিবন্ধন যাচাই

 

হ্যালো প্রিয় বন্ধুরা, আশা করি আপনারা সকলেই অনেক ভালো আছেন। আপনাদের কে আমাদের এই সাইটে আমার পক্ষ থেকে জানাই স্বাগতম। আজকের পোস্ট এ আমি আপনাদের সাথে জন্ম তারিখ দিয়ে জন্ম নিবন্ধন যাচাই করার নিয়ম এই বিষয় টি নিয়ে কথা বলবো। তো চলুন দেরি না করে পোস্ট টি শুরু করে দেওয়া যাক।

 

জন্ম তারিখ দিয়ে জন্ম নিবন্ধন যাচাই

 

যে কোনো ব্যাক্তির জন্য জন্ম নিবন্ধন হলো তারই প্রথম পরিচয়। প্রতিটি দেশের সরকারের থেকে একটি নীতিমালা অনুসারে দেশের সকল নাগরিকদের হিসাব – নিকাশ রাখা হয় এই জন্ম নিবন্ধের মাধ্যমে। যে ব্যাক্তি যে দেশেরই নাগরিক হোক না কেন তার একটি জন্ম নিবন্ধন থাকা হলো বাধ্যতামূলক বিষয়।

জন্ম নিবন্ধন, শিক্ষাসহ নানা অফিসাল কাজে আমাদের ব্যবহার করতে হয়। অন্যান্য দেশ যেখানে নিজেদের আপডেট করে ফেলেছে সেখানে আমরা কেন পিছিয়ে থাকবো, তাই তালে তাল মিলিয়ে আমাদের দেশও অনেকটা ডিজিটাল হয়ে গেছে।

আর এর জন্য এখন জন্ম নিবন্ধন ও ডিজিটাল করা করা হয়েছে। এখন এই জন্ম নিবন্ধন টি ডিজিটাল হয়েছে কী না তা জানার জন্য জন্ম নিবন্ধন যাচাই করতে হয়। তো অনেকেই জানেন না যে সেটা কীভাবে করতে হয়। তাই আজকে আমরা সেই বিষয় নিয়ে আপনাদের জানাবো।

 

জন্ম নিবন্ধন কী কী কাজে লাগে

 

এটা প্রায় সবাই জানে যে জন্ম নিবন্ধন কী কী কাজে লাগে। তাও আমি আরো একবার বলে দিচ্ছি, জানতে তো আর সমস্যা নেই। সাধারণত একটি জন্ম নিবন্ধন কোনো ব্যক্তি বৈধ নাকি অবৈধ ভাবে কোনো দেশে অবস্থান করছে কী না তা জানতে ব্যবহার করা হয়।

See also  সিঙ্গাপুর টু ঢাকা বিমান ভাড়া কত ২০২৩

এছাড়াও জন্ম নিবন্ধন আরো অনেক কাজে লাগে, যার মধ্য অন্যতম হলো কোনো স্কুল, কলেজ, ভার্সিটি কিংবা কোনো অফিসিয়াল কাজের জন্য কোথাও এডমিশন নিতে গেলে সেখানে প্রয়োজন হয়। এছাড়াও আরো অনেক কাজেই জন্ম নিবন্ধন প্রয়োজন হয়।

 

চলুন দেখে নেই জন্ম নিবন্ধন কী কী কাজে লাগেঃ

১. যে কোনো শিক্ষাক্ষেত্রে এডমিশন নিতে।
২. বিদেশ যাওয়ার জন্য পাসপোর্ট তৈরি করতে।
৩. বিবাহ করার নিবন্ধন তৈরিতে।
৪. সরকারী কিংবা বেসরকারি চাকরিতে যোগদান করতে।
৫. ড্রাইভিং লাইসেন্স তৈরি করতে।
৬. যে কোনো ব্যাংক এ একাউন্ট খুলতে।
৭. NID Card (ভোটার আইডি কার্ড) তৈরি করতে।

এগুলো ছাড়াও জমি রেজিষ্ট্রেশন সহ আরো নানা কাজেও জন্ম নিবন্ধন আমাদের কাজে লাগে। তাই আমাদের সব সময় নিজেদের জন্ম নিবন্ধন ঠিকভাবে সংরক্ষণ করে রাখা প্রয়োজন।

 

আরো পড়ুনঃ মেমোরি কার্ড থেকে মুছে যাওয়া ছবি ফেরত আনুন

 

জন্ম তারিখ দিয়ে জন্ম নিবন্ধন যাচাই

 

প্রথমেই আমি আপনাদের একটি কথা জানিয়ে রাখি, সেটা হলো শুধু জন্ম তারিখ দিয়ে কখনোই জন্ম নিবন্ধন যাচাই করা সম্ভব নয়। জন্ম নিবন্ধন যাচাই করতে হলে আপনার জন্ম নিবন্ধন এর নাম্বার টি এর ও প্রয়োজন হবে।

আসলে অনেক সময় আমাদের কাছে এমন জন্ম নিবন্ধন থাকে যা নকল। আসলে অনেক সময় কিছু দালাল টাকার বিনিময়ে নকল জন্ম নিবন্ধন বানায়। তো সেটা আসল না নকল তা যাচাই অর্থাৎ জন্ম নিবন্ধন যাচাই করা প্রয়োজন হয়। তাই আজকে আমরা এখন জন্ম নিবন্ধন যাচাই করার নিয়ম টি দেখবো।

জন্ম নিবন্ধন জন্ম নিবন্ধন যাচাই করার নিয়মঃ

১. জন্ম নিবন্ধন যাচাই করার জন্য প্রথমে আপনাদের https://everify.bdris.gov.bd এই লিংক এ চলে যান।

২. সেই লিংক এ গেলে, ওয়েব সাইটে ৩ টি বক্স পাবেন। সেখান থেকে ১ম বক্স এ আপনার জন্ম নিবন্ধন এর ১৭ ডিজিটের নাম্বার টি লিখে দিবেন।

See also  বিদেশ যাওয়ার জন্য পুলিশ ক্লিয়ারেন্স আবেদন করার নিয়ম

৩. এরপর ২য় বক্স এ দেখবেন সেখানে YY / MM / DD দেওয়া রয়েছে। সেখানে আপনাদের জন্ম নিবন্ধন অনুযায়ী জন্ম তারিখ দিতে হবে। সেখানে YY এর যায়গায় জন্ম সাল, MM এর যায়গায় জন্ম মাস, DD এর যায়গায় জন্ম তারিখ দিয়ে দিবেন। উদাহরণঃ ২০০২-০৩-২৯

৪. এরপর ৩য় বক্সে একটি ক্যাপচা পূরণ করতে হবে। ৩য় বক্সের পাশে বা উপরে দেখবেন একটি ছবি আছে, সেখানে দুটি সংখ্যা যোগ করতে বলবে। সেটার যোগফল যত হবে তা ৩য় বক্সে লিখে দিয়ে সাবমিট করবেন। যদি কোনো ক্ষেত্রে ক্যাপচা এর ছবি বুঝতে না পারেন তাহলে পেজ রিলোড দিয়ে নিবেন।

 

জন্ম তারিখ দিয়ে জন্ম নিবন্ধন যাচাই
জন্ম তারিখ দিয়ে জন্ম নিবন্ধন যাচাই

 

[box type=”warning” align=”aligncenter” class=”” width=””]মনে রাখবেন আপনার যদি ডিজিটাল জন্ম নিবন্ধন এর জন্য আবেদন করে থাকেন তবেই এখানে সেটার রেজাল্ট দেখাবে। যদি ডিজিটাল জন্ম নিবন্ধন এর আবেদন না করে থাকেন তবে আপনার জন্ম নিবন্ধন যাচাই করাটি সম্পূর্ণ হবে না।

যদি ডিজিটাল জন্ম নিবন্ধন এর আবেদন করে না থাকেন তাহলে নিজের ইউনিয়ন পরিষদে গিয়ে তার আবেদন করতে পারবেন অথবা চাইলে অনলাইন থেকেও তার আবেদন করতে পারবেন।[/box]

 

শেষ কথা

 

তো প্রিয় বন্ধুরা আজকের এই পোস্ট এ আপনারা জানলেন, জন্ম তারিখ দিয়ে জন্ম নিবন্ধন যাচাই করার নিয়ম সম্পর্কে। আশা করছি এই পোস্ট টি আপনাদের কাছে অনেক টা ভালো লেগেছে।

ভালো লেগে থাকলে কিন্তু অবশ্যই কমেন্ট করে জানাবেন আমাদের। আর এরকম সব পোস্ট পেতে প্রতিদিন ভিজিট করতে থাকুন আমাদের এই ওয়েব সাইট টি তে। আবার দেখা হবে পরবর্তী কোনো পোস্ট এ। সে পর্যন্ত সকলে ভালো থাকুন সুস্থ থাকুন। আল্লাহ হাফেয।

 

Leave a Comment