পেট ব্যাথা কমানোর উপায়

পেট ব্যাথা কমানোর উপায়

 

হ্যালো প্রিয় বন্ধুরা, আশা করি আপনারা সকলেই অনেক ভালো আছেন। আপনাদের কে আমাদের এই সাইটে আমার পক্ষ থেকে জানাই স্বাগতম। আজকের পোস্ট এ আমি আপনাদের সাথে পেট ব্যাথা কমানোর উপায় এই বিষয় টি নিয়ে কথা বলবো। তো চলুন দেরি না করে পোস্ট টি শুরু করে দেওয়া যাক।

আপনারা কিন্তু অনেকেই সার্চ করে থাকেন পেট ব্যাথা কমানোর উপায় সম্পর্কে। অনেকেই এটি সম্পর্কে জানতে চান। তাই আপনাদের সুবিধার জন্য আজকে আমরা এই টপিক টি নিয়ে আর্টিকেল সাজিয়েছি। আমরা আজকের পোস্ট এ পেট ব্যাথা কেন হয়? এটা হওয়ার কারণ, এবং পেট ব্যাথা কমানোর উপায় সম্পর্কে জানবো। কমবে ইত্যাদি বিষয়ে জানবো।

 

পেট ব্যাথা কেন হয়

 

পেট ব্যাথা করা অনেকটাই স্বাভাবিক একটা ব্যাপার। তবে কিছু কিছু সময় অতিরিক্ত মাত্রায় পেট ব্যাথা হয়। এক্ষেত্রে অবশ্যই ডাক্তার এর কাছে যাওয়া বা তার পরামর্শ নেওয়া উচিত। কেননা কখনো কখনো অ্যাপেন্ডি সাইডের ব্যাথাও এই পেট ব্যাথা থেকেই হয়ে থাকে।

পেট ব্যাথা হওয়ার মূল কারণ হলো বদ হজম, গ্যাস্টিক ও ডায়রিয়া ইত্যাদি রোগ এর কারণে। এ গুলো ছাড়াও খাবার খাওয়ার পর বেশি লাফালাফি করার ফলে, আবার অনেক্ষণ যাবত পায়খানা চেপে রাখার ফলেও পেট ব্যাথা হয়ে থাকে। অনেক সময় আবার অতিরিক্ত মাত্রায় দৌড়া দৌড়ি করলেও এর জন্য পেট ব্যাথা হতে পারে।

 

আরো পড়ুনঃ গলা ব্যাথার ট্যাবলেট এর নাম

 

পেট ব্যাথা হলে কী করতে হবে

 

তো পেট ব্যাথা হলে বেশির ভাগ সময়ই অনেকেই ঘাবরে যান। তো এই সময়টিতে ঘাবরে গেলে চলবে না। তবে পেট ব্যাথা হলে সবথেকে উত্তম হবে প্রথমে এক যায়গায় কিছুক্ষণ বসে থাকা। যদি স্বাভাবিক কোনো কারণে অর্থাৎ, দৌড়া দৌড়ি এর জন্য পেট ব্যাথা হয়ে থাকে তবে কিছুক্ষণ রেস্ট নিলেই তা ঠিক হয়ে যাবে।

See also  ক্যালসিয়াম ও ভিটামিন ডি ট্যাবলেট এর নাম

কিন্তু যদি গ্যাস্টিক বা অন্যান্য কোনো সমস্যার জন্য পেট ব্যাথা হয়, তাহলে সেটা অনেকক্ষণ বিশ্রাম নিলেও কমবে না। তো এর জন্য ডাক্তার এর কাছে যাবেন অবশ্যই। কিন্তু এর আগে আপনি কয়েকটি ঔষধ খেয়ে দেখতে পারেন, যে আপনার পেট ব্যাথা কমে কী না। তবে যদি ট্যাবলেট না খেতে চান তবে কিছু ঘরোয়া টোটকাও আছে যেগুলো ব্যবহার করতে পারেন।

 

পেট ব্যাথা কমানোর উপায়
পেট ব্যাথা কমানোর উপায়

পেট ব্যাথার ট্যাবলেট এর নাম

 

পেট ব্যাথার অনেক গুলোই ট্যাবলেট আছে। কিন্তু আজকের পোস্টে আমি আপনাদের জন্য কয়েক টি ঝুকি মুক্ত ও ভালো কার্যকরী ট্যাবলেট সম্পর্কে জানাবো।

১. Rekool 10
২. Rabeloc 10
৩. Zinetac 150
৪. R Ppi 20 mg

আশা করি এখান থেকে যে কোনো একটি ট্যাবলেট এর একটি পাতা খেলে আপনার পেট ব্যাথা অনেক কমে যাবে। তবে ঔষধ না খাওয়া ছাড়াও কিছু ঘরোয়া টোটকা আছে যা দিয়ে আপনারা পেট ব্যাথা কমাতে পারবেন। নিচে সেগুলো দেওয়া হলো।

 

ঘরোয়া উপায়ে পেট ব্যাথা কমানোর উপায়

 

অনেকেই আছে যারা পেট ব্যাথার ট্যাবলেট খেতে চান। শুধু পেট ব্যাথার ট্যাবলেট কেন, কোনী ট্যাবলেট ই খেতে চান না। এর জন্য আমি আপনাদের কয়েকটি ঘরোয়া টোটকা দিচ্ছি যা ফলো করলে আপনার পেট ব্যাথা কমে যাবে।

১. কিসমিস ও পানিঃ আপনি যদি রাতে কয়েকটি কিস মিস পানিতে ভিজিয়ে রাখেন। এবং সেই পানি সকালে ঘুম থেকে উঠে খালি পেটে খান তবে কিন্তু আপনার পেট ব্যাথা কমাতে এটি বেশ সাহায্য করবে। মূলত গ্যাস্টিক সংক্রান্ত পেট ব্যাথা হলে এটি ভালো কাজে দিবে।

২. আদার গুড়া, গোল মরিচ এর গুড়ো এবং হিং সামান্য পরিমাণে পানির সাথে মিশিয়ে খেলে, বদ হজম এর মতো পেট ব্যাথা থেকে বেশ আরাম পাবেন।

৩. বেশি দৌড়া দৌড়ি করে থাকলে পানির সাথে গ্লুকোজ মিশিয়ে খেয়ে নিন। দেখবেন পেট ব্যাথার সামান্য অংশ ও আর খুজে পাবেন না।

See also  রুচির ট্যাবলেট এর নাম

এগুলো ছাড়াও হয়তোবা আরো নানা টোটকা আছে পেট ব্যাথা কমানোর। তবে আমার আর কোনো টা জানা নেই। আপনার যদি ভালো কোনো টোটকা জানা থাকে তবে তা কমেন্ট করে জনিয়ে দিবেন।

 

শেষ কথাঃ

 

তো প্রিয় বন্ধুরা আজকের এই পোস্ট এ আপনারা জানলেন, পেট ব্যাথা কেন হয়? এটা হওয়ার কারণ। পেট ব্যাথার ট্যাবলেট এর নাম, কোন ট্যাবলেট খেলে পেট ব্যাথা কমবে এবং পেট ব্যাথা হলে কী করণীয় ইত্যাদি। আশা করছি এই পোস্ট টি আপনাদের কাছে অনেক টা ভালো লেগেছে।

ভালো লেগে থাকলে কিন্তু অবশ্যই কমেন্ট করে জানাবেন আমাদের। আর এরকম সব পোস্ট পেতে প্রতিদিন ভিজিট করতে থাকুন আমাদের এই ওয়েব সাইট টি তে। আবার দেখা হবে পরবর্তী কোনো পোস্ট এ। সে পর্যন্ত সকলে ভালো থাকুন সুস্থ থাকুন। আল্লাহ হাফেয।