বিজয়ের মাসের স্ট্যাটাস : ডিসেম্বর নিয়ে স্ট্যাটাস

বিজয়ের মাসের স্ট্যাটাস : ডিসেম্বর নিয়ে স্ট্যাটাস

 

সুপ্রিয় পাঠক । আসসালামু আলাইকুম ওরাহমাতুল্লাহ।নিশ্চয়ই আপনি সুস্থ এবং ভালো আছেন ! আপনি আরো ভালো থাকুন এই কামনা করছি আজকের এই বিজয় দিবসে। সেই সঙ্গে আপনার কাছে শেয়ার করছি বিজয় দিবসের স্ট্যাটাস ।‌ আপনি উপকৃত হলে আমি নিজেকে ধন্য মনে করবো । তো আর কথা বাড়াচ্ছি না। এবার আপনি পাঁচ পর্বে স্ট্যাটাসগুলো‌ পড়ুন।

১৬ ডিসেম্বর বিজয় দিবসের স্ট্যাটাস

 

১.বিজয়ের চেয়ে আনন্দ অন্য কিছুতে নেই। স্বাধীনতার চেয়ে সুখ আর কোথায় হয় না। আর আমরা বিজয় এবং স্বাধীনতা দুটোই পেয়েছি ।

২. আজ বিজয় দিবসে বীর শহীদ মুক্তিযোদ্ধাদের নিয়ে আলোচনা হোক। দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হোক। এতেই তাদের পরকালীন শান্তি।

৩. বিজয়ের প্রকৃত স্বাদ আমরা পাইনি। মানুষ হত্যার রাজনীতি চাইনি । যা চেয়েছি তার ধারেকাছেও যাইনি ।

৪. আমি বাঙালি মুসলমান। বিজয় দিবসে প্রথমে আল্লাহর কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করছি। তারপরে সকল অকুতোভয় বীর সেনাদের শ্রদ্ধার সাথে স্মরণ করছি।

যাদের ত্যাগেই পেয়েছি এই দেশ ।

৫.আসুন আজকের এই বিজয়ের দিনে আত্মার মাগফেরাত কামনা করি । যাদের আত্মত্যাগে আমরা পেয়েছি এই স্বাধীন দেশ ।

১৬ ডিসেম্বর বিজয় দিবসের স্ট্যাটাস

বিজয়ের মাসের স্ট্যাটাস
বিজয়ের মাসের স্ট্যাটাস

৬. আজ ১৬ই ডিসেম্বর । মহান বিজয় দিবস। ১৯৭১ সালের এই দিনে ৩০ লক্ষ শহীদের তাজা প্রাণ এবং দীর্ঘ নয়মাস রক্তক্ষয়ী যুদ্ধের বিনিময়ে আমরা পেয়েছি এই দেশ । তাই তাদের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানাই ।

৭. লাল সবুজের ওই যে পতাকা উড়ছে। ওর লাল রং শহীদের রক্ত এবং সবুজ কালার যেন নবীজির রওজা থেকে ধার করা হয়েছে।

৮. দেশপ্রেম ঈমানের অঙ্গ। এটা হাদীস নয় কিন্তু খুব গুরুত্বপূর্ণ একটি কথা । দেশের প্রতি নবীজির অসাধারণ ভালবাসা ছিল । অতএব আমাদেরও রাখা উচিত ।

৯. বিজয় মানে গর্বিত এক জাতি । লাল সবুজের পতাকা । বিশ্ব মানচিত্রে অভ্যুদয় ঘটা বাংলাদেশ ।

১০. প্রবাসে আমার চলাফেরা ,আমার কথাবার্তা শুনে যখন ঐ দেশের কেউ বলে ওঠে আরে তুমি বাঙ্গালী না ! তখন গর্বে বুকটা ভরে ওঠ। সত্যিই বিজয় দিবসের কোন তুলনা হয় না।

 

 

বিজয় দিবসের স্ট্যাটাস ২০২২

 

১. যুদ্ধ করে দেশ পেয়েছি

সবাই স্বাধীন বেশ

বিজয় দিনে ঘরে ঘরে

নেইকো খুশির শেষ ।

২. দেশকে সবাই ভালোবাসো

নিজের থেকে বেশি

দেশ উন্নয়ন কাজ করে যাও

ছেড়ে রেষারেষি।

৩. দেশের জন্য ভাষার জন্য

আমরা করি লড়াই

বিশ্বে আমরা বীরের জাতি

করতে পারি বড়াই ।

See also  আলিবাবা থেকে পণ্য কেনার নিয়ম

৪. এই মাটিতে শুয়ে আছে

লক্ষ শহীদ গাজী

নতুন করে তাদের মত

হতে আছি রাজি ।

৫. লাল সবুজের ওই পতাকায়

আছে যেন শক্তি

দেখলে তাকে ভালো লাগে

প্রকাশ করি ভক্তি ।

 

বিজয় দিবস ক্যাপশন

 

৬. স্বাধীন দেশে জন্ম হওয়ায়

জীবন পরিপাটি

স্বাধীনভাবে বাস করা যাই

বুক ফুলিয়ে হাঁটি।

৭. বছর ঘুরে ফিরে এলো

বিজয় দিবস আজ

লাখ শহীদদের করছি স্মরণ

তারা মাথার তাজ ।

৮. আজ বিজয়ের মহান দিনে

সবাই শপথ নিন

থাকবে না কেউ আর অভাবী

বদলে যাবে সিন ।

৯. শুনতে আমার ভালো লাগে

দেশের সকল গান

সৎ সাহসের বুক বেঁধে যাই

নেচে ওঠে প্রাণ ।

 

বিজয় দিবস উপলক্ষে স্ট্যাটাস

 

১০. আজ বিজয়ের মহান দিনে

বন্ধ থাকুক কাজ

আজ আনন্দ করে যাব

দেখবো কুচকাওয়াজ।

 

বিজয়ের মাসের স্ট্যাটাস : ডিসেম্বর নিয়ে স্ট্যাটাস

 

১. দেশ ভক্তির কথা তো মুখে মুখে সবাই বলে কিন্তু আসল দেশপ্রেমিক তো সেই যে নিজের কর্মের দ্বারা দেশকে ভক্তি করে ।‌

২. তোমার মাঝে স্বপ্নের শুরু তোমার মাঝেই শেষ

তুমি আমার জন্মভূমি সোনার বাংলাদেশ ।

৩. ১৬ই ডিসেম্বর তুমি বাঙ্গালীদের অহংকার । তুমি কোটি জনতার বিজয় নিশান । তুমি স্বাধীন বাংলার স্বাক্ষর ।

৪. ১৬ ডিসেম্বর তুমি মহা বিজয়ের মহা উল্লাস । নীরবে তুমি সন্তানহারা মায়ের কান্না । গোপনে তুমি স্বামীহারা স্ত্রীর দীর্ঘ শ্বাস । তুমি ভাই হারানো বোনের নিঃশ্বাস ।

৫. গান বাজনার মাধ্যমে শহীদদের স্মরণ ভুল

কি ফায়দা হবে কবরের উপর দিয়ে ফুল?

তাদের আত্মার মাগফেরাত কামনা করুন ।‌

৬. বিজয় তুমি কোটি মানুষের

চলার পথের উৎস প্রেরণার

তুমি সারা বিশ্বে ছড়িয়ে থাকা

সকল বাঙ্গালীদের অহংকার ।

বিজয় দিবসের ছন্দ

 

৭. বিজয় আমাদের পথ দেখিয়েছে । দিয়েছে বাঁচার আশ্বাস । তাই প্রকৃত বিজয় আনতে দীপ্ত পদে হেঁটে যাবো ইনশাআল্লাহ ।

৮. ১৬ ডিসেম্বর তুমি নয় মাসের বেদনা মোড়া স্মৃতিকাতর লৌহ কঠিন নির্মম অতীত । তোমার থেকে শিক্ষা নিচ্ছে বর্তমান প্রজন্ম ।

৯. ১৬ ডিসেম্বর তুমি লাখো শহীদের বুকে রক্তের ভেজা সুশীতল বিছানা, তাদের ত্যাগেই আজকে পেয়েছি চির শান্তির ঠিকানা ।

১০. লক্ষ শহীদের রক্তের বিনিময়ে পেয়েছি বিজয় নিশান ,প্রয়োজনে আবার রক্ত দেবো ঢেলে রাখতে বিজয়ের মান ।‌ সবাইকে মহান বিজয় দিবসের শুভেচ্ছা ।

 

বিজয়ের মাসের স্ট্যাটাস : ডিসেম্বর নিয়ে স্ট্যাটাস

 

১. লক্ষ শহীদ নিজের প্রাণ বিলিয়ে দিয়ে আমাদের উপহার দিয়েছে এই সোনার বাংলা ।এখন আমাদের কর্তব্য এ দেশের যত্ন নেওয়া । যাতে আমাদের ভবিষ্যৎ প্রজন্ম বাংলাদেশি হয়ে গর্ববোধ করতে পারে ।

২. এই মাতৃভূমি এটাও আমার মা । জন্মদাত্রী মায়ের মত এটাকেও ভালোবাসবো ইনশাল্লাহ ।

৩. বিজয় দিবসে অঙ্গীকার হোক, দেশে থাকবে না কোন অভাবী লোক । সবার ঘরে নেমে আসুক সুখ , আলোকিত হোক সবার মুখ ।

৪. জয় বাংলা স্লোগান তুলে নোংরা রাজনীতির ব্যবসা বন্ধ করুন । আদর্শ নাগরিক হয়ে দেশ গঠনে মনোযোগ দিন । সবাইকে বিজয়ের শুভেচ্ছা ।

See also  xiclassadmission.gov.bd college list

৫. আমি একজন বাঙালি । দেশকে নিয়ে আমি গর্ব করি । আমার পূর্বসূরীরাই দেশের জন্য এবং ভাষার জন্য লড়াই করেছেন । বিশ্বের এমন আর কার নজীর আছে ?

৬. মুসলমান হিসেবে মক্কা মদিনা আমাদের প্রিয় স্থান । সেখানে গেলে আবার কিন্তু সবাই বাংলাদেশের ফিরে আসে । এটাই হচ্ছে মাতৃভূমির প্রতি ভালবাসার প্রথম স্তম্ভ ।

৭. মুক্তিযোদ্ধারা দেশকে বিজয় এনে দিয়েছেন আর রেমিটেন্স যোদ্ধারা দেশকে বিশ্বের বুকে এগিয়ে নিচ্ছেন । তাই উভয় পক্ষকেই আমি শ্রদ্ধা জানাই এবং ভালোবাসি ।

৮. বাংলাদেশ তুমি রূপকথার চমক । স্বাধীনতার অহংকার । প্রিয় বাংলাদেশ আমার ‌।

৯. ইংরেজি হিন্দি গান শুনতে ভালো লাগে না । কিন্তু দেশের গান শুনতে খুব ভালো লাগে । চোখের কোনায় জল এসে যায় । ভালো থেকো দেশ ।

১০. প্রথম বাংলাদেশ আমার, শেষ বাংলাদেশ, জীবন বাংলাদেশ আমার ,মরণ বাংলাদেশ ।

 

বিজয় দিবসের স্ট্যাটাস 

 

১.এবারের সংগ্রাম স্বাধীনতার সংগ্রাম ,এবারের সংগ্রাম আমাদের মুক্তির সংগ্রাম ।

– বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান

২.মোরা একটি ফুলকে বাঁচাবো বলে যুদ্ধ করি , মোরা একটি ফুলের জন্য বুকে অস্ত্র ধরি।

– গোবিন্দ হালদার

৩.এক সাগর রক্তের বিনিময়ে বাংলা স্বাধীনতা আনলে যারা আমরা তোমাদের ভুলবো না । আমরা তোমাদের ভুলবো না ।‌ – গোবিন্দ হালদার

৪. বাংলার মুখ আমি দেখিয়াছি ,তাই আমি পৃথিবীর রূপ খুঁজিতে যাই না আর ‌ ।

– জীবনানন্দ দাশ

৫. এই স্বাধীনতা তখনই আমার কাছে প্রকৃত স্বাধীনতা হয়ে উঠবে, যেদিন বাংলার কিশোর মজুর ও দুঃখী মানুষের সকল দুঃখের অবসান হবে ।

– বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান

৬. মুক্ত পাখি মুক্ত আকাশ মুক্ত আমি তুমি

রক্ত দিয়ে কিনে নিলাম প্রিয় জন্মভূমি ।

মুক্ত মাটি মুক্ত পানি মুক্ত সোনার দেশ

মুক্তিসেনা রক্তের ঋণ হবে না শেষ ।

৭. যাদের ত্যাগে বিজয় নিশান ঐ আকাশে ওড়ে

শ্রদ্ধার সাথে স্মরণ তাদের বিজয় দিবস ভোরে ।

৮. এমন দেশটি কোথাও খুঁজে

পাবে নাকো তুমি

সকল দেশের রাণী সে যে

আমার জন্মভূমি।

৯. ইঞ্চি ইঞ্চি মাটি সোনার চাইতে খাঁটি

নগদ রক্ত দিয়ে কেনা

কসম সেই খোদার একটি কোনা ও তার

কেড়ে নিতে কেউ পারবেনা ।

– মুহিব খান

১০. স্বাধীনতা তুমি বাবরি দোলানো মহান পুরুষ সৃষ্টিশক্তির উল্লাসে কাঁপা।

– শামসুর রহমান

 

 

বিজয় দিবসের ছড়া কবিতাঃ

 

বিজয় আসে

শরিফ আহমাদ

 

একাত্তরে লড়াই যখন শুরু–

বীর বাঙ্গালি জাগে

ছোটে সবার আগে

জালিমের বুক কাঁপে দুরুদুরু ।

 

তুমুল লড়াই চলে দিনে রাতে–

পোড়ে কত বাড়ি

কাঁদে শিশু নারী

মুক্তিযোদ্ধা থাকে সবার সাথে ।

 

পাকহানাদার হটে তখন পিছু–

বিভিন্ন কৌশলে

আটকে ইঁদুর কলে

রাজাকার ও সঙ্গে ছিলো কিছু ।

 

লাখ শহীদের রক্ত নদী ঝরে–

নয়টি মাসের শেষে

সূর্য ওঠে হেসে

See also  সিরাজউদ্দৌলা নাটকের সৃজনশীল প্রশ্ন উত্তর

বিজয় আসে বাংলার ঘরে ঘরে ।

 

বিজয় দিবস

শরিফ আহমাদ

 

একাত্তরে কী ঘটেছে

সবার কিছু জানা

হঠাৎ করে পাকহানাদার হানা ।‌

 

গুলি করে মানুষ মারে

জ্বালিয়ে দেয় বাড়ি

নারী-শিশুর করুন আহাজারি ।

 

বীর বাঙ্গালি জেগে ওঠে

অস্ত্র নিয়ে হাতে

লড়াই করে দিনে এবং রাতে ।

 

রক্ত নদী পাড়ি দিয়ে

বিজয় দিবস আসে

ঐ পতাকায় রক্ত ছবি ভাসে ।

বিজয় দিবস উপলক্ষে বিখ্যাত কবিতা

 

খোকার জন্য

শরিফ আহমাদ

 

লড়াই শুরুর প্রথম দিকে

বের হয়েছে খোকা

মাকে দিয়ে ধোঁকা ।

 

বলে গেছে খেলা শেষে

আসবো‌ দ্রুত ফিরে

ভালোবাসার নীড়ে ।

 

কিন্তু খোকা আর আসেনি

মা-টা খোকার শোকে

আজ দেখে না চোখে ।

 

পাগল হয়ে ঘুরে বেড়ায়

খোকার তালাশ করে

আয় খোকা আয় ঘরে ।

বিজয় দিবসের কবিতা

 

মুক্তিযোদ্ধা দাদু

শরিফ আহমাদ

 

আমার দাদুর অনেক বয়স

মুক্তিযোদ্ধা তিনি

তার নিকটে ঋণী

গ্রামের সকল পুরুষ এবং নারী

তাকে নিয়ে গর্ব করতে পারি ।

 

একাত্তরে পাকহানাদার

দাদুর ভয়ে পালায়

হাজারো গ্রাম জ্বালায়

পাখির মতো মানুষ মারে কত

মুক্তিযোদ্ধা দাদু হন না নত ।

 

জীবন বাজি রেখে তিনি

যুদ্ধ করতে নামেন

যুদ্ধ শেষে থামেন

বিজয় নিয়ে ফিরে আসেন ঘরে

ঐতিহাসিক ষোলো ডিসেম্বরে ।

 

বুক ফুলিয়ে চলেন তিনি

আছেন এখন ভালো

চোখে-মুখে আলো

ব্যস্ত থাকেন দেশের সকল কাজে

এমন দাদু অনেক এই সমাজে ।

 

বিজয় দিবস নিয়ে ছন্দ

 

স্বাধীনতার সূর্য

শরিফ আহমাদ

 

দেশ হয়েছে মুক্ত স্বাধীন

ঐ আকাশে তা-ধিন তা-ধিন

বিজয় নিশান ওড়ে

দেশদ্রোহীদের আত্মা কিছু

ছদ্মবেশে ঘোরে ।

 

ওরাই করে পুকুর চুরি

ইয়া মোটা বানায় ভুরি

ওরাই খাদ্যে ভেজাল মেশায়

মানুষ বানায় রোগী

হাজার ভুক্তভোগী ।

পড়ুন  – বিজয় দিবসের বক্তব্য PDF

ওরাই করে জুলুম ধর্ষণ

পাপের ভারে হয় না বর্ষণ

রহম আকাশ থেকে

দেশদ্রোহীদের চামচা কিছু

বিপদ আনে ডেকে।

 

ওদের সঠিক বিচার হলে

শান্তি আসবে দেশে

স্বাধীনতার সূর্য উঠবে

পূব আকাশে হেসে ।

 

দেশকে ভালবাসি

শরিফ আহমাদ

 

বাংলাদেশে জন্ম আমার

দেশকে ভালবাসি

দূর প্রবাসে পাড়ি দিলে

আবার ফিরে আসি ।

 

দেশ-মাটিতে বেড়ে উঠি

খাই যে হালাল খাদ্য

মায়ের ভালোবাসায় বুকে

বাজে সুখের বাদ্য ।

 

ভাষার জন্য দেশের জন্য

যারা করেন লড়াই

গৌরবের ঐ গল্পকথায়

করতে পারি বড়াই ।

 

দেশের বুকে ভালো আছি

স্বাধীন হওয়ার জন্য

সোনার দেশে জন্ম হওয়ায়

জীবন আমার ধন্য ।

 

বিজয় দিবসের শুভেচ্ছা বাণী

 

স্বাধীন বাংলা

শরিফ আহমাদ

 

নিত্য মাঠে কাজ করে যায়

ঘাম ঝরিয়ে চাষি

সোনার ফসল তোলার আগে

মুছে মুখের হাসি ।

 

পশ্চিমারা সব নিয়ে যায় চলে

গরীব চাষী ভাসে চোখের জলে ।

 

কথা বলার নেই অধিকার

বন্ধ স্বাধীন চলার

জেল জুলুমের ভয় দেখিয়ে

চেপে ধরে কলার ।

 

হঠাৎ রাতে আবার করে হানা

এই ঘটনা সবার হলো জানা ।

 

প্রতিবাদে জাগলো সবাই

ছুটলো তুমুল বেগে

পাক বাহিনীর সঙ্গে তখন

যুদ্ধ গেলো লেগে ।

 

রক্ত নদী ঝরে বিজয় এলো

স্বাধীন বাংলা সবাই বুঝে পেল ।

 

 

 

উল্লেখিত স্ট্যাটাসগুলো আপনার কেমন লেগেছে? কমেন্ট করে জানাতে পারেন। আরো কোন বিষয়ের কোন লেখা প্রয়োজন হলে সেটাও জানাতে পারেন। দ্রুত ব্যবস্থা করে দেবো ইনশাআল্লাহ।