ভালো ছাত্র হওয়ার উপায়

হ্যালো প্রিয় ভিজিটর গণ, আশা করি সকলে অনেক ভালো আছেন। আপনাদের কে আমাদের এই সাইটে আমার পক্ষ থেকে জানাই স্বাগতম। আজকের পোস্ট এ আমি আপনাদের সাথে ভালো ছাত্র হওয়ার উপায় এই বিষয় টি নিয়ে কথা বলবো। তো চলুন দেরি না করে পোস্ট টি শুরু করে দেওয়া যাক।

 

সবাই যে সব সময় এক হবে তা না। কেউ একটু বেশি বুদ্ধিমান, আবার কেউ বেশি পরিমাণে বোকা। আবার কেউ হয়তো ভালো কেউ বা খারাপ। কেউ পড়াশোনায় ভালো কেউ বা খারাপ। প্রতিটা ব্যাক্তি কোনো না কোনো যায়গা একটু দূর্বল হয়। কেউ কখনো পার্ফেক্ট হতে পারে না সব দিক থেকে।

কিন্তু অনেকেই আবার ছাত্র হিসেবে খুব একটা ভালো ছাত্র নয়। তো তাদের জন্য আজকের এই পোস্ট। এই পোস্ট পড়লে আপনারা ভালো ছাত্র হওয়ার এমন ৫ টি টিপস পাবেন যা ফলো করলে আশা করি আপনাদের সেগুলো কাজে দিবে।

 

ভালো ছাত্র হওয়ার উপায়

নিচে ভালো ছাত্র হওয়ার ৫ টি টিপস দেওয়া হলোঃ

 

নিয়মিত হওয়া

একজন ভালো ছাত্র কখনো অনিয়মিত হয় না। আপনি প্রতিদিন স্কুলে দেখেবন যে ক্লাসের ভালো ছাত্র সে প্রতিদিন এর পড়া প্রতি দিন এ শেষ করে এবং প্রতিদিন এর হোম ওয়ার্ক প্রতিদিন স্যার এ কাছে জমা দেয়। এটা হলো ভালো ছাত্র হওয়ার একটি গুরুত্বপূর্ণ দিক।

আপনি যদি প্রতিদিন সময় করে পড়াশোনা করেন এবং প্রতিদিন এর কাজ প্রতিদিন করেন তখন আপনার আর পরিক্ষার আগে কষ্ট করতেই হবে না। দেখবেন যা পড়তে যাবেন সেটা অটোমেটিক আপনার মাথায় চলে আসছে।

 

আরো পড়ুনঃ পড়াশোনা মনে রাখার সহজ উপায়

 

মনোযোগী হওয়া

ক্লাসে মনোযোগী হওয়া আরো একটি ভালো দিক। খেয়াল করলে দেখবেন একজন ভালো ছাত্র প্রতি ক্লাসে বেশ মনোযোগী থাকে আর স্যারেরা কোনো প্রশ্ন করলে চট করে তার উত্তর দেয়। আপনি যদি প্রতিদিন ক্লাসে স্যার কি পড়ায় তা খেয়াল করেন তাহলে আপনিও অনেক ভালো ছাত্র হয়ে উঠতে পারবেন।

 

ভালো ছাত্র হয়ে ওঠার নিয়ম
ভালো ছাত্র হয়ে ওঠার নিয়ম

 

কৌশলী হওয়া

যে কোনো বিষয়ে শুধু পড়লে আর বুঝলেই হবে না। সেই জিনিস টা কেন হলো, কিভাবো হলো, না হলে কি হতো? ইত্যাদি বিষয় গুলো যদি কোনো বিষয়ের উপর প্রশ্ন করা যায় এবং সেগুলোর উত্তর বের করা যায় তাহলে সেই জিনিস টা খুব ভালো ভাবে মাথায় ঢুকে।

ফলে পরিক্ষার সময় বা কেউ জিজ্ঞেস করলে চট করে আমরা সেগুলোর উত্তর দিতে পারি। এটাও কিন্তু ভালো ছাত্র হওয়ার একটি গুরুত্বপূর্ণ দিক।

 

ক্লাসে সক্রিয় থাকা

ক্লাসে সক্রিহ থাকা বলতে, শিক্ষকরা কোনো পড়া পড়াচ্ছেন এসময় তারা পড়া টি পড়াতে পড়াতে সে পড়ানো জিনিস গুলো যে কোনো সময় ধরতে পারে। সে জন্য শিক্ষকরা কি পড়াচ্ছেন তা খেয়াল করতে হবে, আর সে গুলো ধরলে চট করে উত্তর দিতে হবে।

এতে আপনি শিক্ষকদের কাছে অনেক প্রিয় হয়ে উঠবেন। যার ফলে দেখবেন আপনি পড়াশোনা প্লাস আরো অনেক বিষয়ে প্রিয় হয়ে ওঠা শিক্ষকদের কাছ থেকে সাহায্য পাবেন।

 

সাবধানে বন্ধুত্ব করা

আমাদের চারপাশে এমন ও অনেকে আছে যারা ভালো আবার কেউ খারাপ। আর একজন ভালো ছাত্র হওয়ায় আপনার সব সময় উচিত খারাপ দের থেকে এড়িয়ে চলা। সব সময় ভালোদের সাথে বন্ধুত্ব করবেন। এর মানে এটা নয় যে যাদের ক্লাস রোল অনেক কম (৫০ জনের ভেতর ৩৫-৫০) (১০০ জনের ভেতর ৫০-১০০) তাদের সাথে বন্ধুত্ব করবেন না।

এদের সাথেও বন্ধুত্ব করবেন, যদি তারা ভালো হয়। অনেক সময় দেখা যায় একজন ভালো ছাত্র স্কুলে নতুন ভর্তী হয়েছে। তাহলে সাধারণ ভাবে তার রোল অনেক কম হবে। তো তাদের সাথেও বন্ধুত্ব করা উচিত যদি তাকে দেখে ভালো মনে হয়।

আমরা জানি ❝সঙ্গ দোসে লোহা ভাসে❞। এর মানে আমরা একটা কথাই জানি, ভালো কেউ খারাপের সাথে মিশলে ভালো ও খারাপ হয়ে যায়। কিন্তু এটাকে যদি আমরা একটু পজিটিভ নেই, তাহলে দেখবেন কথাটি আসে, খারাপ কেউ ভালোর সাথে মিশলে সেও ভালো হয়ে যায়।

এর মানে আপনি যদি একজন বন্ধুকে সব সময় ভালো কাজে উৎসাহিত করেন তাহলে কিন্তু সেও আপনার উৎসাহে ভালো হয়ে যেতে পারে।

 

[আপনার যদি কোনো বই হাড়িয়ে বা ছিড়ে যায় আর স্কুলেও যদি এক্সট্রা বই না থাকে তাহলে আপনি ntcb.gov.bd সাইট থেকে যে কোনো বই pdf আকারে ডাউনলোড করে সেটাকে প্রিন্ট করে নিতে পারবেন।]

 

তো ভিজিটর গণ আশা করি পোস্ট টি আপনাদের কাছে ভালো লেগেছে। ভালো লেগে থাকলে কিন্তু অবশ্যই কমেন্ট করে জানাবেন। আর এরকম পোস্ট পেতে প্রতিদিন ভিজিট করতে থাকুন আমাদের এই সাইট টি। আবার দেখা হবে পরবর্তী কোনো পোস্ট এ। সে পর্যন্ত সকলে ভালো থাকুন সুস্থ থাকুন। আল্লাহ হাফেয।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *