রুচির ট্যাবলেট এর নাম

হ্যালো প্রিয় বন্ধুরা, আশা করি আপনারা সকলেই অনেক ভালো আছেন। আপনাদের কে আমাদের এই সাইটে আমার পক্ষ থেকে জানাই স্বাগতম। আজকের পোস্ট এ আমি আপনাদের সাথে রুচির ট্যাবলেট এর নাম এই বিষয় টি নিয়ে কথা বলবো। তো চলুন দেরি না করে পোস্ট টি শুরু করে দেওয়া যাক।

 

 

আপনারা কিন্তু অনেকেই সার্চ করে থাকেন রুচির ট্যাবলেট এর নাম সম্পর্কে। অনেকেই এটি সম্পর্কে জানতে চান। তাই আপনাদের সুবিধার জন্য আজকে আমরা এই টপিক টি নিয়ে আর্টিকেল সাজিয়েছি। আমরা আজকের পোস্ট এ রুচির ট্যাবলেট এর নাম, অরুচি কেন হয়, রুচির ট্যাবলেট খাওয়ার নিয়ম ইত্যাদি বিষয়ে জানবো।

 

খাবারে অরুচি কেন হয়

 

খেতে ভালো লাগে না, মুখে খাবার ভালো লাগে না, খাবারে অরুচি এখন প্রায় সকলের কাছেই স্বাভাবিক। এই সমস্যা কখনো সাময়িক, কখনো দীর্ঘমেয়াদী আবার কখনো নানা সমস্যার জন্য হয়ে থাকে। অনেক কারণে খাবারের অরুচি হয়ে থাকে। নিম্নে আমরা সেগুলো জানবো।

১. গর্ভাবস্থায় অবস্থায় খাবারে অরুচি হয়, এটা স্বাভাবিক। তবে দীর্ঘ দিন ধরে সমস্যা হলে ডাক্তার দেখানো উচির।

২. গ্যাসের সমস্যা বা বদ হজমের জন্য খাবারে অরুচি হয়।

৩. লিভার বা যকৃত কিংবা কিডনির সমস্যার জন্য খাবারে অরুচি হয়।

৪. ক্যান্সারে আক্রান্ত রোগিদেরও মুখের অরুচির সমস্যা হয়।

৫. মানসিক সমস্যা বা ডিপ্রেশনে থাকলে অরুচি হয়।

৬. মুখে ছত্রাক বা ঘা এর সংক্রমণ হলে খাবারে অরুচি হয়।

৭. কৃমির সংক্রমণ এর জন্যও খাবারে অরুচি হয়।

৮. শরীরে ভিটামিন এর অভাব দেখা দিলে খাবারে অরুচি হয়।

 

আরো পড়ুনঃ পেট ব্যাথার ট্যাবলেট এর নাম।

 

মুখের রুচি বাড়ানোর উপায়

 

মুখে রুচি বাড়ানোর জন্য আমরা কয়েকটি পন্থা অবলম্বন করতে পারি। আমরা যদি সেগুলো মেনে চলতে পারি তবে মুখের অরুচি খুব একটা হবে না। তো চলুন এবার সেই নিয়ম গুলো জেনে নেই।

১. রাতে পর্যাপ্ত পরিমানে ঘুমাতে হবে। একজন প্রাপ্ত বয়স্ক মানুষের ২৪ ঘন্টায় সর্বনিম্ন ৬ ঘন্টা ও সর্বোচ্চ ৭ ঘন্টা ঘুমানো উচিত।

২. নিয়মিত ব্যায়াম করা উচিত। বিশেষ করে ঘুমাতে যাওয়ার আগে এবং ঘুম থেকে উঠেই। তবে খালি পেটে করা যাবে না।

৩. রাতে কিসমিস পানিতে ভিজিয়ে রেখে পরেরদিন সকালে সেই পানি খাবেন।

৪. রোজ সকালে সিদ্ধ ছোলা খাওয়ার চেষ্টা করবে।

৫. প্রতিদিন সঠিক সময় মতো ঘুমাতে যাবেন ও ঘুম থেকে উঠবেন।

৬. কোনো প্রকার নেশা করা যাবে না।

৭. মানসিক চাপ বা টেনশন নেওয়া যাবে না।

৮. প্রতিদিন রাতে খাবার খাওয়ার আগে ছোট এক পিস কাঁচা আদা চিবিয়ে খাবেন।

৯. গ্যাস্টিক এর সমস্যা থাকলে নিয়মিত সেটার ঔষধ খান।

১০. টক জাতীয় ফল বা যে কোনো খাবার খেতে পারেন।

 

রুচির ট্যাবলেট এর নাম
রুচির ট্যাবলেট এর নাম

রুচির ট্যাবলেট এর নাম

 

নানা কাজ করার পরেও মুখে রুচি না আসলে আমাদের সর্বশেষ পন্থা হলো রুচির ট্যাবলেট খাওয়া। তো চলুন রুচির ট্যাবলেট এর নাম জেনে নেওয়া যাক।

১. Deflux 10mg – খাওয়ার পূর্বে প্রতিদিন তিন বার খেতে হবে।

2. 20 Mg – খাওয়ার ৩০ মিনিট পূর্বে দিন দুই বার খেতে হবে সকাল এবং রাতে।

 

রুচির সিরাপ এর নাম

 

যারা মুখের রুচি ফেরাতে ট্যাবলেট খেতে চান না তাদের জন্য ২ টি সিরাপের নামের তালিকা নিচে দেওয়া হলো।

১. Bicozin – সিরাপ। দুই চা-চামচ করে দিন দুইবার (সকাল ও রাতে) খাওয়ার পরে খাবেন।

2. Megestrol – সিরাপ। প্রতিদিন দুই বার দুই চা- চামচ করে সকাল ও বিকালে খাবার পরে খাবেন।

 

[box type=”warning” align=”aligncenter” class=”” width=””]কখনো কোনো রোগ কে সাধারণ করে দেখবেন না। সর্বদা সকল রোগের চিকিৎসার জন্য ডাক্তারের পরামর্শ অবশ্যই নিবেন। তবে আমরা চেষ্টা করে থাকি আপনাদের নির্ভুল তথ্য দেওয়ার জন্য।

তারপরও যদি কোনো ভূল হয়ে থাকে তা হলে তা ক্ষমাসুন্দর দৃষ্টিতে দেখার জন্য এবং তা সুধরে দেওয়ার অনুরোধ রইলো। এবং যে কোনো ঔষধ বা ট্যাবলেট খাওয়ার আগে অবশ্যই ডাক্তারের পরামর্শ নিবেন।[/box]

 

শেষ কথাঃ

 

তো প্রিয় বন্ধুরা আজকের এই পোস্ট এ আপনারা জানলেন, রুচির ট্যাবলেট এর নাম, অরুচি কেন হয়, রুচির ট্যাবলেট খাওয়ার নিয়ম ইত্যাদি। আশা করছি এই পোস্ট টি আপনাদের কাছে অনেক টা ভালো লেগেছে।

ভালো লেগে থাকলে কিন্তু অবশ্যই কমেন্ট করে জানাবেন আমাদের। আর এরকম সব পোস্ট পেতে প্রতিদিন ভিজিট করতে থাকুন আমাদের এই ওয়েব সাইট টি তে। আবার দেখা হবে পরবর্তী কোনো পোস্ট এ। সে পর্যন্ত সকলে ভালো থাকুন সুস্থ থাকুন। আল্লাহ হাফেয।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *