হুমকির জিডি করার নিয়ম

হুমকির জিডি করার নিয়ম

হ্যালো প্রিয় বন্ধুরা, আশা করি আপনারা সকলেই অনেক ভালো আছেন। আপনাদের কে আমাদের এই সাইটে আমার পক্ষ থেকে জানাই স্বাগতম। আজকের পোস্ট এ আমি আপনাদের সাথে হুমকির জিডি করার নিয়ম এই বিষয় টি নিয়ে কথা বলবো। তো চলুন দেরি না করে পোস্ট টি শুরু করে দেওয়া যাক।

 

হুমকির জিডি করার নিয়ম

 

অনেক সময়ই অনেকে কোনো কোনো কাজের ক্ষেত্রে অনেকেই হুমকি দিয়ে থাকে। এক্ষেত্রে যাকে হুমকি দেওয়া হয়েছে তারা অনেকটা ভয় পেয়ে যায় এবং এমন কিছু কাজ করে বসে যা ঠিক নয়, আবার অনেক সময় হুমকি দিয়ে জমি, টাকা ও নিয়ে নিতে চায় অনেকে। তো এক্ষেত্রে আমাদের সকলরই জিডি করা উচিত।

জিডি (GD) মানে হলো সাধারণ ডায়েরি (General Dairy)। এটা দেশের নাগরিকদের জন্য একটি আইন গত অধিকার। তবে অনেকেই হুমকির জিডি করার নিয়ম জানেন না। আজকে আমরা সেই বিষয়েই আলোচনা করবো।

 

আরো পড়ুনঃ ফেসবুক পেজ থেকে আয় করার উপায় ২০২৩

 

হুমকির জিডি কখন করতে হয়

 

অনেক সময় বাড়ির আশে পাশে কিংবা দূরে কোথাও জমি – জমার জন্য অনেকে হুমকি দেয়। আবার কোনো কাজে কারো সাথে কোনো বড় রকমের ঝামেলা হলেও অনেকেই হুমকি দেয়। তবে সব সময় যারা হুমকি দেয় তারাই অপরাধী হয় না।

অনেক সময় তারা রাগের মাথায় হুমকি দিয়ে থাকে। তবে কিছু কিছু ক্ষেত্রে অনেকেই আছে যারা আগে থেকেই অপরাধের সাথে যুক্ত। তারা যদি কখনো হুমকি দেয় তবে সেটা একেবারেই উড়িয়ে দেওয়ার মতো বিষয় হবে না।

অনেক সময় পরিবারের কাউকে কিডন্যাপ করার ও হুমকি দেয় অনেকে। তো এ সকল বিষয় একদম উড়িয়ে না দিয়ে সাথে সাথে নিজস্ব এলাকার থানার ওসির নিকট একটি জিডি করা উচিত।

 

হুমকির জিডি কেন করবো

হুমকির জিডি করার মূল কারণ হলো নিজের আত্নরক্ষা করা। আপনি যদি আগে থেকেই থানায় কারো বিরুদ্ধে জিডি করে থাকেন, এবং পরে আপনার কোনো ক্ষতি হয় তবে আপনি দ্রুতই থানা থেকে সহযোগিতা পাবেন, কেননা আপনি আগে থেকেই জিডি করে রেখেছেন।

আর এর ফলে, আপনার ক্ষতি হলে সেই ক্ষতির প্রথম আসামী হিসেবে জিডিতে উল্লেখ থাকা ব্যক্তিকেই গণ্য করবে তারা এবং তার বিরুদ্ধে যথাযথ পদক্ষেপ নিবে। তবে সাথে তারা তদন্ত করেও দেখবে যে আসল অপরাধী কে, যতক্ষণ না আসল অপরাধী পাওয়া যাবে তাকেই প্রথম অপরাধী বলে গন্য করবে তারা।

 

হুমকির জিডি করার নিয়ম
হুমকির জিডি করার নিয়ম

হুমকির জিডি করার নিয়ম

 

হুমকির জিডি করতে হলে আপনাকে মূলত একটি আবেদন পত্র থানার ইনচার্জ বা ওসির কাছে জমা দিতে হবে। এই আবেদন পত্র টি হাতে লিখেও দিতে পারেন আবার চাইলে কম্পিউটারে টাইপ করে সেটা প্রিন্ট করেও দিতে পারেন।

এই আবেদন পত্র টি জমা দিলে আপনার জিডি পুলিশরা গ্রহণ করবে, এবং আপনার কোনো ক্ষতি হলে জিডিতে উল্লেখ করা ব্যক্তিকেই ধরবে। তবে অনেকেই আছেন যারা এই জিডি করার জন্য যে আবেদন পত্র লিখতে হয়, সেটা পারেন না। তো চলুন এখন আমরা হুমকির জিডির আবেদন পত্র কিভাবে লিখতে হয় সেটা জেনে নেই।

 

হুমকির জিডির আবেদন পত্র লেখার নিয়ম

 

যারা হুমকির আবেদন পত্র লিখতে পারেন না তাদের জন্য স্টেপ বাই স্টেপ নিয়ম অনুযায়ী হুমকির জিডির আবেদন পত্র টি লেখার নিয়ম নিচে দেওয়া হলো। যারা পারেন না তারা অবশ্যই সেটি ফলো করবেন।

১. আবেদন পত্র লেখার সময় প্রথমেই একটি নির্দিষ্ট তারিখ (যে দিন লিখবেন সেই দিনের) দিয়ে দিবেন।

২. এরপরে আপনি যে মডেল থানার আওতাভুক্ত এলাকায় থাকেন সেই মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ অথবা ওসি বরাবর আবেদন পত্র লিখবেন।

৩. এবার আপনি যে মডেল থানার আওতাভুক্ত এলাকায় থাকেন, সেই থানার নামটি উল্লেখ করুন।

৪. এবার বিষয়ের স্থানে উল্লেখ করুন যে, “হুমকির জন্য সাধারণ ডায়েরি করার আবেদন।”

৫. এখন প্রথমে একটি সম্মান সূচক বাক্য, যেমনঃ জনাব, মহোদয় ইত্যাদি দিয়ে নিচের লাইন থেকে আবেদন লেখা শুরু করে দিন। প্রথম লাইনে আপনি নিজের ব্যক্তিগত পরিচয় টি দিবেন এবং আপনি কোথায় থাকেন সেটা উল্লেখ করবেন। যদি বর্তমান ঠিকানা এবং স্থায়ী ঠিকানা একই হয় তবে আলাদা করে কিছু লিখবেন না, আর যদি আলাদা হয় তবে দুটোই উল্লেখ করবেন।

৬. এবার আপনাকে যে ব্যাক্তি আপনাকে হুমকি দিয়েছে তার নাম, কোথায় থাকে, পারিবারিক তথ্য এবং কী কারণে হুমকি দিয়েছে এই সকল বিষয় তুলে ধরবেন।

৭. এবার, আপনার জিডি যেন তারা মঞ্জুর করে সেই বিষয় টি উল্লেখ করবেন।

৮. নিবেদক (ছেলে হলে) / নিবেদিকার (মেয়ে হলে) জায়গায় আপনার নাম দিবেন এবং তারিখ উল্লেখ করে দিবেন সাথে আপনার একটি স্বাক্ষর প্রদান করবেন। তবে সমস্যা টি যদি কোনো এলাকা ভিত্তিক হয় তবে এই যায়গায় এলাকার কয়েকজন ব্যাক্তির নাম ও সাক্ষর নিতে হবে।

ব্যস এভাবে একটি আবেদন পত্র লিখে থানার ওসির নিকট জমা দিলেই আপনার জিডির কাজ সম্পন্ন হবে। তবে জিডি করার সময় যদি আপনার কাছ থেকে কোনো অর্থ চায় তারা তবে সেটি দিবেন না, কেননা জিডি করতে কখনো টাকা লাগে না। এক্ষেত্রে ৯৯৯ এ কল দিয়ে এই সম্পর্কে তাদের অবহিত করবেন। এছাড়াও বাংলাদেশ পুলিশের সকল নিয়ম জানতে এবং কোন সময় কী নোটশ আসে তা জানতে gd.police.gov.bd এই ওয়েব সাইট টি ভিজিট করবেন।

শেষ কথা

 

তো প্রিয় বন্ধুরা আজকের এই পোস্ট এ আপনারা জানলেন, হুমকির জিডি করার নিয়ম, হুমকির জিডির আবেদন করার নিয়ম ইত্যাদি। আশা করছি এই পোস্ট টি আপনাদের কাছে অনেক টা ভালো লেগেছে।

ভালো লেগে থাকলে কিন্তু অবশ্যই কমেন্ট করে জানাবেন আমাদের। আর এরকম সব পোস্ট পেতে প্রতিদিন ভিজিট করতে থাকুন আমাদের এই ওয়েব সাইট টি তে। আবার দেখা হবে পরবর্তী কোনো পোস্ট এ। সে পর্যন্ত সকলে ভালো থাকুন সুস্থ থাকুন। আল্লাহ হাফেয।

1 Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *