খুশকি দূর করার উপায়

খুশকি দূর করার উপায়

হ্যালো প্রিয় বন্ধুরা, আশা করি আপনারা সকলেই অনেক ভালো আছেন। আপনাদের কে আমাদের এই সাইটে আমার পক্ষ থেকে জানাই স্বাগতম। আজকের পোস্ট এ আমি আপনাদের সাথে খুশকি দূর করার উপায় এই বিষয় টি নিয়ে কথা বলবো। তো চলুন দেরি না করে পোস্ট টি শুরু করে দেওয়া যাক।

 

খুশকি দূর করার উপায়

 

খুশকি হলো এক প্রকার সমস্যা। এটি থেকে অনেকেউ পরিত্রাণ পেতে চান। তবে সঠিক নিয়ম বা উপায় না জানার জন্য অনেকেই এটি থেকে পরিত্রাণ পান না। তাই আজকে আপনাদের সাথে খুশকি দূর করার উপায় নিয়েই কথা বলবো।

 

খুশকির কারণ

 

খুশকি দূর করার উপায় জানার আগেই আমাদের জানতে হবে খুশকি কেন হয়। কোন কারণে খুশকি হয়। তো চলুন আগে সেই বিষটি জেনে নেই। আমাদের মাথার খুলির ত্বকে এক ধরণের ফাঙ্গাস বা ইস্ট জাতীয় ব্যকটেরিয়া সংক্রম করে। মূলত এই সংক্রমণ বেশি হলে মাথায় খুশকি হয়।

 

খুশকির কারণে যে সমস্যা হয়

 

খুশকির কারণে চুল পড়া সহ আরো নানা সমস্যা হয়ে থাকে। খুশকির জন্য প্রতিনিয়ত চুল পড়তে থাকে। এটা একটি বড় সমস্যা। এছাড়াও সাদা খুশকি গুলো যখন মাথা থেকে কাপড়ে জমা হয় তখন অনেকেই বিব্রতকর পরিস্থিতিতে পড়ে যান।

দৈনিক কাজের ক্ষেত্রে, যেমনঃ অফিস – আদালত ইত্যাদি কর্মক্ষেত্রে যদি এরকম খুশকির সম্মুখীন হতে হয় তবে এটা অনেকটা বিব্রতকর পরিস্থিতিতে পড়ে যান।

 

আরো পড়ুনঃ ফেসবুক পেজ থেকে আয় করার উপায়

 

খুশকি কখন বেশি হয়

 

শীতের মৌসুম টা মূলত অনেকটা শুষ্ক হয়। ফলে ঠোট ফাটা, পায়ের গোড়ালি ফাটা ইত্যাদি সমস্যার মতো খুশকি এর প্রকোপ ও বেশ অনেকটা বাড়তে থাকে। তাই এই শীতের মৌসুমে কিছু এক্ট্রা যত্ন নিতে হবে।

 

খুশকি দূর করার উপায়
খুশকি দূর করার উপায়

খুশকি দূর করার উপায়

 

খুশকি দূর করার উপায় অনেক গুলো রয়েছে। তবে আজকে আমরা কয়েকটি খুশকি দূর করার উপায় ঘরোয়া নিয়মে জানবো। কেননা এগুলো বেশি এফেক্টিক হয়। নিচে কয়েকটি উপায় দেওয়া হলোঃ-

১. খুশকি এর সমস্যা দূর করতে অ্যাপল সাইডার ভিনেগার ব্যবহার আপনারা করতে পারেন। সমান পরিমাণ ভিনেগার ও পানি এক সাথে মিশিয়ে মাথার ত্বকে মালিশ করবেন। ১৫ মিনিট অপেক্ষা করার পর সেটা ধুয়ে ফেলুন। সপ্তাহে দুই বারের বেশি এটি ব্যবহার করা যাবে না।

২. নারিকেল তেল এবং লেবু খুশকি দূর করতে বেশ ভালো কাজ করে থাকে। দুই চামচ নারিকেল তেল এবং সমান পরিমাণ লেবুর রস এক সাথে মিশিয়ে মাথার ত্বকে মালিশ করুন। এর পরে শ্যাম্পু দিয়ে চুল পরিষ্কার করে নিন। তবে যাদের মাথার ত্বক অনেক সংবেদনশীল তাদের ক্ষেত্রে লেবু ব্যবহারের সময় সতর্ক থাকতে হবে।

৩. গ্রিন টি বা সুবজ চা ব্যাক্টেরিয়া – রোধী উপাদান সমৃদ্ধ ও এটা মাথার ত্বক এর স্বাস্থ্য ভালো রাখতে সাহায্য করে। তাই খুশকি কমাতে গ্রিন টি অথবা সবুজ চা ব্যবহার করতে পারেন। এক কাপ গরম পানিতে দুইটি গ্রিন টি এর টি-ব্যাগ ২০ মিনিট ধরে ডুবিয়ে রাখুন। এর পর ঠাণ্ডা হয়ে গেলে তা মাথার ত্বকে ব্যবহার করে ৩০ মিনিট অপেক্ষা করুন। এর পর এ ঠাণ্ডা পানি দিয়ে চুল ধুয়ে নিন।

৪. চিকিৎসক এর পরামর্শ অনুযায়ী খুশকি দূর করার শ্যাম্পু ব্যবহার করতে পারেন।

 

শেষ কথা

 

তো প্রিয় বন্ধুরা আজকের এই পোস্ট এ আপনারা জানলেন, খুশকি দূর করার উপায়, কিভাবে খুশকি দূর হবে, কী ব্যবহার করলে খুশকি আর থাকবে না ইত্যাদি। আশা করছি এই পোস্ট টি আপনাদের কাছে অনেক টা ভালো লেগেছে।

ভালো লেগে থাকলে কিন্তু অবশ্যই কমেন্ট করে জানাবেন আমাদের। আর এরকম সব পোস্ট পেতে প্রতিদিন ভিজিট করতে থাকুন আমাদের এই ওয়েব সাইট টি তে। আবার দেখা হবে পরবর্তী কোনো পোস্ট এ। সে পর্যন্ত সকলে ভালো থাকুন সুস্থ থাকুন। আল্লাহ হাফেয।

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *